দেবিদ্বারে কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে ইমাম আটক

দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ
রাস্তা থেকে ফুসলিয়ে এক কিশোরীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগে মাহফুজুর রহমান (২১) নামের এক মসজিদের ইমামকে আটক করেছে থানা পুলিশ। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে ইমাম। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকালে দেবিদ্বার উপজেলার ছোটশালঘর দক্ষিণ পাড়ার বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদের ইমামের থাকার ঘরে। বর্তমানে ওই কিশোরী দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ছোটশালঘর দক্ষিণ পাড়ার বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদে ইমাম মাহফুজুর রহমান স্থানীয় এক কিশোরীকে (১৫) রাস্তা থেকে ফুসলিয়ে তার থাকার ঘরে নিয়ে গামছা দিয়ে মুখ বেঁধে তাকে ধর্ষণ করে। পরে কিশোরী বাড়ি গিয়ে মায়ের নিকট ঘটনা খুলে বললে স্থানীয় লোকজন ইমামকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। ওই ঘটনায় কিশোরীর ভ্যান চালক পিতা বাদী হয়ে মসজিদের ইমাম মাহফুজুর রহমানের বিরুদ্ধে দেবিদ্বার থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ইমাম ধর্ষণের কথা স্বীকার করেন। আটককৃত ইমাম মাহফুজুর রহমান উপজেলার ভিরাল্লা গ্রামের (আবুল বাড়ির) মো. সাইদুল ইসলাম ছেলে। বর্তমানে ওই কিশোরী দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
কিশোরীর ভ্যান চালক পিতা জানান, তার মেয়ে তাদের পুরাতন বাড়িতে যাওয়া-আসার পথে প্রায় সময়ই ওই ইমাম উক্ত্যাক্ত ও কুপ্রস্তাব দিত। ঘটনার দিন সকালে বাড়িতে যাওয়ার পথে ওই ইমাম রাস্তা থেকে ডেকে মসজিদের পূর্ব পাশে থাকার রুমে কাছে নিয়ে গিয়ে গামছা দিয়ে মুখ বেঁধে তাকে ধর্ষণ করে।
এব্যাপারে দেবিদ্বার থানার ওসি মো. জহিরুল আনোয়ার জানান, ওই কিশোরী বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত ইমাম মাহফুজুর রহমান ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করেছে। শনিবার দুপুরে ওই ইমামকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...