মতলব দক্ষিণে টিকা দেওয়ার পর দেড় মাস বয়সী শিশুর মৃত্যু

ফজলে রাব্বী ইয়ামিন, মতলব দক্ষিণ (চাঁদপুর) :–
মতলব পৌরসভার সদরস্থ মধ্য কলাদী এলাকায় দেড় মাস বয়সী সামিয়া নামে এক শিশু টিকার দেওয়ার পর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে শিশুটি মারা যায় বলে জানিয়েছেন তার পরিবার। ঘটনা জানতে পেরে শিশুটির বাড়িতে যান জেলার সিভিল সার্জন রথিন্দ্র নাথ মজুমদার ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃএকেএম মাহবুবুর রহমান। এ ব্যাপারে জেলা সিভিল সার্জনকে আহবায়ক করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
সরেজমিনে জানা যায়, শিশু সামিয়ার বয়স গত ১৯ আগষ্ট দেড় মাস পূর্ণ হলে তার মা আয়েশা বেগম মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে টিকা দেন। বাড়িতে আসার পর সামিয়া রাতে সামান্য জ্বর অনুভব হলেও বুকের দুধ খেয়েই ঘুমিয়ে পড়ে। ভোররাতে তার মা ঘুম ভেঙ্গে যাওয়ার পর দেখেন সামিয়ার কোন সাড়া শব্দ নড়া চড়া নেই। তখনই তার মা ডাক চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে।
সামিয়ার মা আয়েশা বেগম জানান, তার মেয়ের দু’পায়ে ও বাম হাতে টিকা দেওয়া হয়। রাতে ঘুমাবার আগে ভালোই ছিলো, কিন্তু ভোরে উঠে দেখি সে কোন নড়া চড়া করছে না। এসময় তার শরীরের টিকা দেওয়ার স্থান বাম হাতসহ শরীরের বা’পাশের অংশ নীল বর্ণ ও সমস্ত শরীর কালো হয়ে গিয়েছে।
প্রতিবেশী আহসান মৃধা জানান, গত দেড় মাসে শিশু সামিয়ার কোন ধরণের অসুস্থতার কথা শুনেননি বা দেখেনি। কিন্তু টিকা দেওয়া পর কি হয়ে গেলো বুঝতে পারছিনা।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃএকেএম মাহবুবুর রহমান জানান, আমি ঘটনা শুনেই তাৎক্ষণিক ভাবে শিশুটির বাড়িতে যাই এবং আমার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ জেলা সিভিল সার্জনকে জানাই। তিনিও ঘটনারস্থল পরিদর্শন করেন। পরে সিভিল সার্জন অফিস ঘটনার সম্পর্কে জানার জন্য পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। কমিটির সদস্যরা হচ্ছেন জেলা সিভিল সার্জন, মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, মেডিকেল অফিসার, একজন শিশু বিশেষজ্ঞ ও ইপিআই কর্মকর্তা।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...