কুমিল্লার বুড়িচংয়ে পিকেটিং করতে দেয়নি পুলিশ॥ লাঠিচার্জে আহত ১২

 

সৌরভ মাহমুদ হারুন :–
বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সমন্বয়ক সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে গতকাল বৃহস্পতিবার কুমিল্লার বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় ডাকা সকাল সন্ধ্যা হরতালে বুড়িচংয়ে রাস্তায় পিকেটিং করতে দেয়নি পুলিশ। এসময় পুলিশের লাঠিচার্জে কমপক্ষে ১২ নেতাকর্মী আহত হয়েছে।
জানা যায়, গত মঙ্গলবার সাংবাদিক শওকত মাহমুদকে ঢাকায় গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ। এর প্রতিবাদে তাৎক্ষনিক বৃহস্পতিবার সকাল সন্ধ্যা হরতাল ডাকে বিএনপি নেতৃবৃন্দ। হরতালের সমর্থনে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮ টায় বুড়িচং সদর (উত্তর বাজার) এলাকায় বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল, ছাত্রদলসহ বিভিন্ন অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা জড়ো হতে থাকে। খবর পেয়ে বুড়িচং থানা অফিসার ইনচার্জ উত্তম কুমার বড়–য়া সঙ্গীয় ফোর্সসহ উপস্থিত হয়ে নেতাকর্মীদের ঘটনাস্থল ত্যাগ করার জন্য নির্দেশ দেন। কিন্তু নেতাকর্মীরা রাস্তায় পিকেটিং করার চেষ্ঠা চালায়। এসময় পুলিশ নেতাকর্মীদের ধাওয়া করে ছাত্র ভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করেন। এতে উপজেলা যুবদলের সেক্রেটারী মোঃ জামাল উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক আবু নাছের, উপজেলা ছাত্রদল নেতা জামাল হোসেন, সোহাগ পারভেজ, নাজির মাহমুদ নছির, দেলোয়ার হোসেন দোলন, জি.এইচ জোবায়ের সহ কমপক্ষে ১০/১২ জন দলীয় নেতাকর্মী আহত হয়। এদিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক, কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়ক, কুমিল্লা-বুড়িচং-মীরপুর সড়ক, কুমিল্লা-শংকুচাইল-বাগড়া সড়কে যান চলাচল ছিল স্বাভাবিক, উপজেলার ব্যাক, বীমা, অফিস-আদালত, স্কুল-কলেজেও হরতালের কোন প্রভাব পরেনি।

বুড়িচং থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উত্তম কুমার বড়ুয়া ও ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান জানান, হরতাল চলাকালে উপজেলা সদরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে। তবে উভয় উপজেলায় যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...