মনোহরগঞ্জে ব্যবসায়ীর উপর অতর্কিত হামলা

মনোহরগঞ্জ প্রতিনিধি:–
কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার লক্ষণপুর ইউনিয়নে মড়হ বাজারের ব্যবসায়ী হেদায়েত উল্লাহ (৪৩) এর উপর গত সোমবার অতর্কিত হামলা চালানো হয়। জানা যায়, মড়হ মিজি বাড়ির আমির হোসেনের পুত্র হেদায়েত উল্লাহর কাছে গত রবিবার রাত আনুমানিক ১২ টার দিকে একই গ্রামের জামাল মিয়ার পুত্র মহিন (২২) চাঁদা চাইতে আসলে তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকার করেন। চাঁদা না পেয়ে পরের দিন সোমবার সকালে হেদায়েত উল্লাহ বাজারে গেলে আগ থেকে ওৎপেতে থাকা একই গ্রামের রশিদ মেম্বারের নেতেৃত্বে জামাল মিয়ার পুত্র ও রশিদ মেম্বারের নাতি মহিন (২২), আবদুর রশিদের পুত্র মামুন (২৮), জাকির হোসেন (২২) এবং চকিদার বাড়ির মৃত ছেরাজুল হকের পুত্র সুমন (২৫) সহ অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এক পর্যায়ে হামলাকারীরা হেদায়েত উল্লাহকে মারধর করে এবং বাজারে থাকা তার দোকান ঘর ভাংচুর করে। এ ঘটনায় হেদায়েত উল্লাহর বাম হাতে মারাত্মক রক্তাক্ত ও জখম করে হামলাকারীরা। পরে তারা হেদায়েত উল্লাহর বাবা আমির হোসেন ও ভাই সাফায়েত উল্লাহকে মারধর করে। মারাত্মক আহত অবস্থায় হেদায়েত উল্লাহকে লাকসাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় হেদায়েত উল্লাহ বাদী হয়ে মনোহরগঞ্জ থানায় উল্লিখিত হামলাকারীদেরকে আসামী করে আরো অজ্ঞাত ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে হেদায়েত উল্লাহর পরিবার উল্লেখিত বিবাদীদের ভয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মামলার বিবাদী রশিদ মেম্বারের মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। মোবাইল বন্ধ থাকার কারণে তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মোজাম্মেল জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার তদন্ত করা হয়েছে। মনোহরগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর এসআই মোজাম্মেলকে তদন্ত করার জন্য বলা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলেই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...