দাউদকান্দিতে পুলিশের সাথে আ.লীগ নেতা-কর্মীদের বাকবিতন্ডা

নিজস্ব প্রতিনিধি :–
কুমিল্লার দাউদকান্দির দশপাড়ায় আজ রোববার বিকালে বাংলাদেশের স্থপতি জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যার পরিকল্পনাকারী খন্দকার মোস্তাক আহমেদের বাড়ি ঘেরাও কর্মসূচী পালনকালে পুলিশ প্রশাসনের সাথে বাক বিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে স্থানীয় আ.লীগ নেতা কর্মীরা।
দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমনের নেতৃতে আওয়ামীলীগের পূর্ব নির্ধারীত কর্মসূচীর খবর পেয়ে পুলিশ আজ সকালেই শহীদনগরের পাশে দশপাড়ায় খন্দকার মোস্তাক আহমেদের বাড়ির অদূরে বালির ট্রাক ফেলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। আন্দোনকারীদের প্রতিরোধ সৃষ্টি করাই ছিল এর মূল উদ্দেশ্য। তখন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের হাজার-হাজার নেতা-কর্মী পুলিশের বাধাঁ উপেক্ষা করে বাড়ির দিকে রওয়ানা হন এবং সব বাঁধা ডিঙ্গিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এসময় পুলিশের সঙ্গে নেতা-কর্মীরা বাক-বিত-ায় জড়িয়ে পড়েন এবং একসময পুলিশের বাঁধায় তারা থেমে যান।
পরে আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীদের উপিস্থিতিতে উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমনের নেতৃত্বে ওই সড়কে অবস্থান করেন। এসময় এক পথ সভায় মোহাম্মদ আলী সুমন প্রশাসনের নিকট জোর দাবি জানান যে, ‘খুনি মোস্তাকের সকল সম্পত্তি যেন সরকার বায়েজাপ্ত করেন’।
উপস্থিত আইন শৃংখলা বাহিনী বিষয়টি উর্ধতন কর্মকর্তাদের জানানোর আশ্বাস দিলে আন্দোনলনকারীরা ঘেরাও কর্মসূচি শেষ করে নিজ নিজ অবস্থানে চলে যান।
ওই ঘেরাও কর্মসূচীতে উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, দাউদকান্দি উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এ্যাডভোকেট আহসান হাবিব চৌধুরী লিল মিয়া, দাউদকান্দি পৌর মেয়র হাজী আব্দুছ ছাত্তার, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জি. আবদুছ সালাম, সহ-সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, সহ-সভাপতি এস,এম কেরামত আলী, যুবলীগ আহ্বায়ক মহিউদ্দিন শিকদার, শ্রমীকলীগ সভাপতি রকিব উদ্দিন প্রমুখ।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...