সৌদিআরবে সড়ক দূর্ঘটনায় বুড়িচংয়ের ১জন নিহত, আহত ৩

সৌরভ মাহমুদ হারুন :–
সৌদিআরবে সড়ক দুর্ঘটনায় হুমায়ূন কবির (৩০) নামে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ভাদুয়াপাড়া গ্রামের এক প্রবাসী নিহত হয়েছে। সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় সৌদি আরবের তায়েফ শহরে এ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। এঘটনায় আহত হয়েছেন একই এলাকার আরো তিন জন।
নিহত হুমায়ূন কবির বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের ভাদুয়াপাড়া গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, সোমবার দিবাগত রাতে বন্ধুদের সঙ্গে প্রাইভেটকার যোগে রিয়াদ থেকে তায়েফ যান। সেখান থেকে ফেরার পথে প্রাইভেটকারের চাকা বিকল হয়ে উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান হুমায়ূন কবির।
এ সময় আহত হন প্রাইভেটকারে অপর তিন আরোহী। আহতদের সবাই কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের আকবপুর গ্রামের অধিবাসি। আহতদের নাম মো: হানিফ, মো: শাহ আলম ও মো: হারেছ। আহত একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
সূত্র জানায়, ভাদুয়াপাড়া গ্রামের আমির হোসেনের দুই ছেলে দুই মেয়ের মধ্যে হুমায়ূন কবির তৃতীয়। হুমায়ূন কবির দুই ছেলে ও এক মেয়ে সন্তানের জনক। তার সন্তানদের নাম- যথাক্রমে নাহিদুল ইসলাম ছাকিব (১১), হুমায়রা কবীর ছাবা (৪) এবং মিহাদুল ইসলাম আকিব (১)। নিহতের পারিবারিক সূত্র ও স্বজনরা জানান, প্রায় ১৪ বছর আগে শ্রমিক হিসেবে সৌদিআরবে যান হুমায়ূন। এর মধ্যে ৪-৫ বার ছুটিতে দেশে আসেন। গত ১১ মাস আগেও তিনি দেশে আসেন।
তবে মৃত্যুর পর তার মরদেহ আর দেশের মাটিতে সমাহিত হবে কি না এ নিয়ে সংসয় দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যেই সৌদিআরবে কাগজপত্রের জটিলতায় নিহত হুমায়ূন কবিরের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনার আশা ছেড়ে দিয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা। এ ব্যাপারে কর্মসংস্থান ও জনশক্তি জেলা কার্যালয়ের এমএসও মো: বশির জানান, এব্যপারে তাদের কাছে এ ধরনের কোন তথ্য নেই। নিহতের পরিবারও তাদের সাথে কোন প্রকার যোগাযোগ করেননি। তবে, সৌদিতে নিহত কোন ব্যাক্তির মরদেহ ফেরতের বিষয়টি কতোটা জটিল এ বিষয়ে জানতে চাইলে এই কর্মকর্তা জানান, এটি তেমন কোপ জটিল প্রক্রিয়া নয়। আমাদের সাথে যোগাযোগ করলেই আমরা এব্যাপারে সহায়তা প্রদান করবো।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...