অতিবৃষ্টির কারনে ভেঙ্গে যাচ্ছে মতলবের গুরুত্বপূর্ন বিভিন্ন রাস্তা : বন্ধ হতে চলেছে যোগাযোগ ব্যবস্থা

শামসুজ্জামান ডলার :–
অতিবৃষ্টির কারনে ভেঙ্গে যাচ্ছে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার গুরুত্বপূর্ন বিভিন্ন রাস্তা। রমজান মাস থেকে শুরুকরে অবিরাম বর্ষনের কারনে উপজেলার মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্পের বাহিরে ও ভিতরের বেশ ক’টি রাস্তা ধসে পড়েছে। রাস্তা ধসে আমিরাবাদ বাজার-আনন্দ বাজারের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হতে চলেছে। এরমধ্যে সেচ প্রকল্পের ভিতরের রাস্তার চেয়ে বাহিরের রাস্তায় ভাঙ্গনের পরিমান বেশী এবং বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখাগেছে যে সকল রাস্তা পাশে মাছ চাষ করার পুকুর রয়েছে এবং মালামালবাহী ৬চাকার ট্র্যাক্টর চলাচল করে সে সকল রাস্তাই ভেঙ্গেছে বেশী।

উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের আমিরাবাদ বাজার থেকে আনন্দ বাজার পর্যন্ত অন্তত ১০টি স্থানে রাস্তা ধসে পড়েছে। এছাড়াও গজরা বাজার থেকে রাড়ীকান্দি হয়ে লুধুয়া স্কুল ও ঠেটালিয়া ব্রীজ পর্যন্ত অন্তত ৮/১০টি স্থানে রাস্তা ধসে পড়েছে। সুজাতপুর বাজার, মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্পের বিভিন্ন স্থানে রাস্তা ধসে পড়েছে যা মেরামত করা খুবই জরুরী। অন্যথায়, রাস্তা একেবারে ধসেগিয়ে যাতায়াত বন্ধ হয়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন সময় উপজেলার বিভিন্ন রাস্তায় মাটি ফেলা হলেও রাস্তার ঢাল কখনোই চওয়া করা হয় না বলেই রাস্তাগুলো মজবুত হচ্ছে না। তবে এলাকাবাসীর সাথে কথা হলে তারা জানায়, রাস্তাগুলো ধসে যাওয়ার অন্যতম প্রধান কারন অতিবৃষ্টির সাথে মালবাহী ৬চাকার দানবীয় ট্র্যাক্টরটি অতিরিক্ত মালামাল নিয়ে চলাচল করছে স্থানীয় রাস্তাগুলো দিয়ে।
ইতিমধ্যে আমিরাবাদ বাজার থেকে আনন্দ বাজার পর্যন্ত যাতায়াত করা অটোরিক্সা, সিএনজি চালিত অটোরিক্সাসহ অন্যান্য যানবাহন চলাচল করছে মারাত্বক ঝুঁকির মধ্যে থাকলে যে কোন সময় এ চলাচল বন্ধ হয়ে যাবার আশঙ্কা রয়েছে।

এ ব্যপারে মতলব উত্তর উপজেলা প্রকৌশলী(এলজিইডি) এনামূল হক জানায়, বর্ষার মৌসুম চলে যাবার পর দ্রুততম সময়ের মধ্যে রাস্তা সংস্কারের কাজ করা হবে।

Check Also

যে কোনো আন্দোলন-সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে : বিএনপি

চাঁদপুর প্রতিনিধি :– চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সাধারণ সভায় বক্তারা বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম ...