তাজুল ইসলাম এমপি’র সাথে মনোহরগঞ্জের হাসনাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

আকবর হোসেন, মনোহরগঞ্জ প্রতিনিধি:–
বাংলাদেশ সরকারের বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মোঃ তাজুল ইসলামের সাথে মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের প্রায় তিন শতাধিক নেতাকর্মী মতবিনিময় করেছেন। মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি’র ঢাকা কার্যালয়ে সোমবার এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই মতবিনিময় সভায় হাসনাবাদ ইউনিয়ন থেকে আগত বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি’র কাছে হাসনাবাদ ইউনিয়নের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন। উন্মুক্ত বক্তব্য প্রদান অনুষ্ঠানে নেতা কর্মীরা বলেন, হাসনাবাদ ইউনিয়নে বর্তমান আওয়ামীলীগের কমিটি মৃত প্রায়। এই ইউনিয়নে সাংগঠনিক কার্যক্রম হয়না বললেই চলে। নেতা কর্মীদের মাঝে এ ব্যাপারে চরম ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে বর্তমানে। বিভিন্ন কার্যক্রম গুটি কয়েক নেতাকর্মী অন্যান্য নেতাকর্মীদেরকে না জানিয়ে নিজেরা করে ফেলে। ফলে নেতাকর্মীদের মাঝে দলীয় কুন্দল সৃষ্টি হয়। কিছুদিন পূর্বে হাসনাবাদ ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতির সাথে সহ-সভাপতির ৪০ দিনের কর্মসূচীর টাকা নিয়ে হাতাহাতি মারামারি হয়। তারপর ছাত্রলীগ সভাপতি ৪ জনের বিরুদ্ধে মনোহরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছেন। হাসনাবাদ ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি ছিদ্দিকুর রহমান খোকন ও হাসনাবাদ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আবুল কালাম শিপন সহ বাকীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করায় এবং মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে ও কিছু নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ নিয়ে হাসনাবাদ ইউনিয়নের প্রায় তিন শতাধিক নেতাকর্মী ঢাকায় তাজুল ইসলাম এমপি’র কাছে যান। এ ছাড়াও তারা তাজুল ইসলাম এমপি’র কাছে হাসনাবাদ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন করে একটি পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার জন্য দাবী জানান। তাছাড়াও বর্তমানে নেতৃত্বধারী কিছু নেতাকর্মীর অনিয়মের বিরুদ্ধে তারা এমপি’র কাছে অভিযোগ করেন। বিদ্যুতের নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ তারা করেন। বিভিন্ন প্রকার হুমকি ধমকি মিথ্যা মামলা দিয়ে টাকা পয়সা আদায় করার ব্যাপারে তারা এমপি’র কাছে জানান। বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ না করে টাকা উত্তোলন ও টাকা আত্মসাতের ব্যাপারে তারা এমপি’র কাছে অভিযোগ করেন। বিভিন্ন প্রকার শালিস দরবার করে টাকা নেওয়ার ব্যাপারেও তারা অভিযোগ করেন। বর্তমানে হাসনাবাদ ইউনিয়নে নেতাকর্মীদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। মোটকথা তারা এমপি মোঃ তাজুল ইসলামের কাছে তাদের সকল প্রকার অভিযোগ-অনটন ও দুঃখ প্রকাশ করেন। বর্তমানে নেতৃত্বধারী কিছু নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে তারা বিভিন্ন ধরনের অনিয়মের অভিযোগ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বঙ্গবন্ধু ফোরামের সভাপতি ও আওয়ামীলীগ নেতা লায়ন গাজী গোলাম সারোয়ার, সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান চৌধুরী, আওয়ামীলীগ নেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সোনা মিয়া সুবেদার, বদিউজ্জামান, মহরম আলী, মাস্টার আবুল বাশার, মনিপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মনির আহম্মদ, রামদেবপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা মোজাম্মেল, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা আবদুর রহমান শুক্কুন, নরপাইয়া ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা তোফাজ্জল হোসেন দুলাল, মনিপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা শাহাব উদ্দীন, শ্রীপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক লাতু মিয়া, আওয়ামীলীগ নেতা রঞ্জন আলী, নয়নপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আমিন পাটোয়ারী, আওয়ামীলীগ নেতা মনসুর আহম্মেদ, সোলাইমান এমএসসি, আওয়ামীলীগ নেতা নাইমুর রহমান, মনির হোসেন, মানরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা কাশেম মোল্লা, হাসনাবাদ ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম খলিল, আওয়ামীলীগ নেতা হারুনুর রশিদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ শাহজাহান, হাসনাবাদ ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা আবু হানিফ, আওয়ামীলীগ নেতা নুর মিয়া, হাসনাবাদ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মিজানুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সেন্টু, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ শেখ ফরিদ, ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি লিটন,নাওতলা ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি মোঃ মিলন হোসেন, রামদেবপুর ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা মহসিন, দুলাল, যুবলীগ নেতা ইয়াছিন, যুবলীগ নেতা সিরাজ, স্বপন, রাশেদ, হাসনাবাদ ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা লিটন, যুবলীগ নেতা মাহফুজুর রহমান ভূইয়া, তৌহিদ বাপ্পা, আজাদ, শ্রীপুর ওয়ার্ড যুবলীগের নেতা শাহিন, মানরা ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা শিপন, চৌধুরী, হাসনাবাদ ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ মনির হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা রাজু, রাজন, সাদ্দাম, নরপাইয়া ওয়ার্ড ছাত্রলীগ সভাপতি মহসিন, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, হাসনাবাদ ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিয়াজী মোঃ আল আমিন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নিক্সন ভূইয়া, ছাত্রলীগ নেতা, সুজন লিটন সহ আরো অনেকে। পরে এমপি তাজুল ইসলাম উপস্থিত নেতা কর্মীদের জন্য ইফতারের আয়োজন করেন। এছাড়াও তাদের সকল অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বস্থ করেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...