তিতাসে পতিতাবৃত্তির অভিযোগে আটক মহিলা ইউপি মেম্বারসহ ৩ জনকে কোর্টে প্রেরণ

নাজমুল করিম ফারুক :—
কুমিল্লার তিতাসে বলরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা মেম্বার পতিতা সর্দারনী হিসেবে খ্যাত সাধনা আক্তারসহ ৩ জনকে কোর্টে প্রেরণ করেছে তিতাস থানা পুলিশ। শুক্রবার সকালে তাদের নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কোর্টে প্রেরণ করা হয়।
স্থানীয় ও তিতাস থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গাজীপুর গ্রামের নিজ বাড়ীতে দীর্ঘদিন যাবৎ সাধনা মেম্বার এলাকার প্রভাবশালী মহলকে ম্যানেজ করে বিভিন্ন এলাকা থেকে মেয়ে এনে দেহ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার একই গ্রামের স্কুল পড়–য়া ষষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে জোরপূর্বক খদ্দরের সাথে সহবাসে বাধ্যকালে এলাকার লোকজন গণপিটুনী দিয়ে বলরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা মেম্বার পতিতা সর্দারনী সাধনা আক্তার, তার বোন রোজিনা আক্তার ও পতিতা পাশ্ববর্তী দাউদকান্দি উপজেলার বাসরা গ্রামের মৃত মোশারফের স্ত্রী রাহিমাকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে। ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর মা ও উপজেলার গাজীপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী রুমি বেগম বাদী হয়ে ৪ জনকে অভিযুক্ত করে তিতাস থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করলে উক্ত মামলায় তাদের কোর্টে প্রেরণ করা হয়।
এদিকে, সাধনা মেম্বার গ্রেফতারের খবর তিতাসে ছড়িয়ে পড়লে শুক্রবার দিনভর উপজেলার বিভিন্ন বাজার ও রাস্তার চা থেকে শুরু করে বিভিন্ন বিপনী বিতানগুলোতে বিষয়টি টগ অব দ্যা তিতাসে পরিণত হয়। নতুন ওসি মনিরুল ইসলাম তিতাস থানায় যোগদানের পর থেকে দালালদের উৎপাত কমে যাওয়ায় এবং অপরাধ দমনে অগ্রনী ভূমিকা পালন করায় অনেকে প্রশংসা করেন।
তিতাস থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, উক্ত ঘটনায় ভিকটিমের মা রুমি বেগম বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা হয়েছে (মামলা নং-৫)। গ্রেফতারকৃত আসামীদের কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। ভিকটিমকে মেডিকেল চেকাপ করার জন্য কুমিল্লায় পাঠানো হয়েছে। অপর আসামী উজ্জলকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...