কুমিল্লায় পুলিশ-আসামি সংঘর্ষে ৮ পুলিশ আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক :–
কুমিল্লায় একটি হত্যা মামলার আসামিদের আটক করতে গিয়ে পুলিশ ও আসামি পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ ও গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। এতে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশের চার এস.আইসহ অন্তত আট পুলিশ সদস্য এবং আসামি পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

আজ বুধবার বেলা ৩টার দিকে কুমিল্লা মহানগরীর সুজানগর নবগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। কোতয়ালী মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই শামছুদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে মহানগরীর কাঁটাবিল এলাকায় রানা নামের এক যুবককে গুলি ও ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়। নিহত রানা নগরীর সুজানগর এলাকার আবদুল জলিলের পুত্র। সে নগরীর সুজানগর এলাকার গত বছরের ৪ এপ্রিল সংঘটিত জানু মিয়া হত্যা মামলার আসামি ছিলেন।

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে জানু মিয়া হত্যা মামলার বাদি শাহ আলমকে প্রধান আসামি করে ১২ জনের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার রাতে থানায় মামলা করেন। বুধবার দুপুরে কোতয়ালী থানা পুলিশের একটি টিম মামলার আসামিদের গ্রেফতারে ওই এলাকা ঘিরে ফেলে।

এসময় হত্যা মামলার আসামি ও তাদের লোকজন দা, লাঠিসহ দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এ সময় এলাকাবাসী ও পুলিশের মধ্যে প্রায় ৩০/৪০ মিনিটব্যাপি সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে এস.আই মোস্তফা, মজনু, তাজুল ইসলাম ও কামালসহ অন্তত আট পুলিশ আহত হন।

এছাড়াও পুলিশের শটগানের গুলিতে আসামি পক্ষের অন্তত ১০/১২ জন আহত হয়েছেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। আহতদের কুমেক ও জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে তিন প্লাটুন অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুটি দেশীয় পাইপগান উদ্ধার ও ১০ জনকে আটক করেছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...