দাউদকান্দিতে ভূল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু

আলমগীর হোসেন,দাউদকান্দি :–
দাউদকান্দিতে ভূল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুর অভিযোগে দুই ডাক্তার ও এক নার্সকে আটক করেছে মডেল থানা পুলিশ। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় দাউদকান্দি পৌর সদরের দোনারচর ফ্যামেলি হসপিটালে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রোগী মাইনুদ্দিন (৫৩) দাউদকান্দি পৌরসভার দোনারচর গ্রামের মৃত আব্দুল খালেক ড্রাইভারের ছেলে। এলাকাবাসী ও রোগীর স্বজনরা জানান , গতকাল শুক্রবার স›দ্ধ্যায় মাইনুদ্দিন হার্নিয়ার সমস্যা নিয়ে ফ্যামেলি হসপিটালে ভর্তি হয়। ডাক্তারের পরামর্শক্রমে রাত সাড়ে ৯টায় অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে গেলে অতিরিক্ত এ্যানেসথেসিয়া প্রয়োগ ও অন্ডকোষের কাছে কাটাছেড়ায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্সদের উপর হামলা করার জন্য ছুটাছুটি হৈ চৈ করলে পুলিশ অপারেশন থিয়েটারে কর্ত্যব্য পালন করা ডাঃ শামছুদ্দিন, ডাঃ রিজবি ও নার্স রাশিদাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। ফ্যামিলী হসপিটালের মালিক দাউদকান্দি পৌর মেয়র ভিপি আব্দুস ছাত্তার বলেন, মানুষের মৃত্যু কখন কার কোথায় হবে তা কেউ জানেনা একমাত্র আল্লাই ভালো জানেন। তবে আমাদের কোন অবহেলা ছিল না। কুমিল্লা সিভিল সার্জন ডাঃ মজিবুর রহমান জানান, ‘এ ব্যাপারে ঘটনার রাতেই স্থানীয় সাংবাদিকের মাধ্যমে আমি জেনেছি এবং ২ ডাক্তার ও ১ নার্সকে দাউদকান্দি মডেল থানা পুলিশ আটক করেছে। তিনি আরো জানান এ ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। দাউদকান্দি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোঃ আনোয়ারুল হক জানান, জনতার উত্তেজনা প্রশমন করার লক্ষে দুইজন ডাক্তার ও একজন নার্স কে নিরাপত্তার সার্থে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এদিকে আটককৃতদের বিচারের দাবিতে এলাকাবাসী রাতে দাউদকান্দি মডেল থানার সামনে বিক্ষোভ মিছিল করে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...