তিতাসে মাদকাসক্ত স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

নাজমুল করিম ফারুক :–

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার পাঙ্গাসিয়া গ্রামের দু’সন্তানের জননী সাহিদা বেগম (২৫) কে তার মাদকাসক্ত স্বামী পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার রাতে উপজেলার পাঙ্গাসিয়া গ্রামে উক্ত ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধু পাঙ্গাসিয়া গ্রামের শেখ ফরিদের স্ত্রী ও একই উপজেলার নাগেরচর গ্রামের জসিম উদ্দিনের মেয়ে। নিহতের দু’কন্যা সন্তান নুরী (৫) ও নুরজাহান (৩) রয়েছে।
নিহতের মা সামছুন্নাহার বেগম ও খালাতো বোন খাদিজা আফরিন স্থানীয় সংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, শেখ ফরিদ ও তার বোন সাজু বেগম ও রিনা বেগম বুধবার রাতে ৮টার দিকে দরজা বন্ধ করে সাহিদাকে পিটিয়ে আহত করলে এক পর্যায়ে তার মৃত্যু ঘটে। মৃত্যুকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার লক্ষ্যে পরে তার মুখে বিষ ঢেলে দেয় বলেও তারা অভিযোগ করেন। সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, নিহতের বাড়ীতে শোকের মাতম। বুধবার রাত থেকে বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত লাশ বাড়ীতে রাখা হয়েছে। বেলা ১০টার দিকে পাঙ্গাসিয়া ও আশে-পাশের গ্রামের লোকজন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের বাসায় উক্ত হত্যাকাণ্ডকে ধামাচাপা দেয়ার জন্য বৈঠকে বসেন। এদিকে পাঙ্গাসিয়া গ্রামের একাধিক ব্যক্তি জানান, নিহতের স্বামী শেখ ফরিদ মাদকাসক্ত। সে প্রায় তার স্ত্রী সাহিদা বেগমকে মারধর করত। বুধবার রাতেও স্ত্রীকে মারধর করে সে একটি মাজারে গিয়ে মাদকাসক্ত অবস্থায় রাত কাটায়। সকালে আত্মীয়-স্বজন তাকে কৌশলে বাড়ীতে এনে বৈঠকে হাজির করে। তিতাস থানার অফিসার ইনচার্জ তারেক মোঃ আব্দুল হান্নান বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...