চৌদ্দগ্রামে ঝড়ের প্রবলে ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়

মোঃ বেলাল হোসাইন,চৌদ্দগ্রাম :–

গ্রীষ্মকাল শুরু না হতেই নিয়মিত বিদ্যুতের লোডশেডিং এর বিরম্ভনা সইতে সইতেই সত শনিবার রাত থেকে টানা ২দিন বিদ্যুৎ না থাকায় গেছে সমগ্র চৌদ্দগ্রামের স্বাভাবিক জীবনযাপন। জনজীবনে নেমে এসেছে বিপর্যয়। এতে করে বন্ধ হয়ে গেছে উপজেলার ছোট বড় প্রায় শতাধিক কলকারখানার উৎপাদন, পড়া লেখার বিগ্ন ঘটছে উপজেলার লক্ষাধিক ছাত্র-ছাত্রীদের। বিশেষ করে চলমান এইচ.এস.সি পরীক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে সবচেয়ে বেশি। পাশাপাশি বৈদ্যুতিক সমস্যা এবং রাতের ঝড়-তুফানের কারনে চৌদ্দগ্রামের প্রায় সকল মোবাইল অপারেটরের টাওয়ারও ব্যাপক ক্ষতিগস্থ হয়েছে। নেটওয়ার্ক সমস্যার কারনে যোগাযোগ ব্যবস্থাও প্রায় বন্ধ হওয়ার উপক্রম। উল্লেখ্য গত শনিবার সন্ধ্যার পরপর হালকা বৃষ্টিপাতের সাথে সাথেই বন্ধ হয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ। রাত ৮ টায় পর শুরু হওয়া বৃষ্টি এবং তুফান থেমে থেমে ২-৩ ঘন্টা পর্যন্ত চলে। ঝড় বৃষ্টি বন্ধ হওয়ার পরও বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে পারেনি চৌদ্দগ্রাম ওয়াপদা এবং পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি। চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চৌদ্দগ্রাম বাজার এবং মুন্সিরহাট বাজারে ওয়াপদার সংযোগ। বাকী সকল উপজেলাতেই বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ন্ত্রন করে কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর অধিনে চৌদ্দ্রগ্রাম ট্রেনিং সেন্টারস্থ চৌদ্দগ্রাম অফিস। এই বিষয়ে সোমবার বিকালে উপজেলা ওয়াপদা অফিসের এক কর্মকর্তা জানান ঝড়, বৃষ্টির কারনে উপজেলা বেশ কিছু স্থানে গাছ পড়ে তার ছিড়ে গেছে যা মেরামতের জন্য ওয়াপদার দুইটি টিম কাজ করছে। অপরদিকে উক্ত সমস্যার কারন জানতে চৌদ্দগ্রামে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি অফিস এর ভারপ্রাপ্ত এ.জি.এম মঞ্জুরুল আলমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, শনিবার রাত ৮ টার পর বৃষ্টির সাথে সাথে ব্যাপক তুফান হওয়ায় সমগ্র চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বেশ কিছু স্থানে বিদ্যুতের তার, পিলার এবং কোথাও তারের উপর গাছপড়ে তার ছিঁড়ে গেছে। বিদ্যুতের প্রবাহ স্বাভাবিক করতে রবিবার ভোর থেকেই সমগ্র চৌদ্দগ্রামে মোট ২৫টি ইউনিট কাজ করেছে বলে তিনি জানান এবং এখনো কিছু কিছু স্থানে সংযোগ স্বাভাবিক না হওয়ায় এখনো কিছু ইউনিট কাজ করছে বলে জানান তিনি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...