ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সওজ’র খাল ভরাট করে ট্রাকস্ট্যান্ড!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :–

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক-মালিক সমিতির বিরুদ্ধে ট্রাকস্ট্যান্ড বানানোর নামে সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের খাল ভরাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পৌর শহরের কোকিল সুতাকল সংলগ্ন খালটি বালু দিয়ে ভরাট করা হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, খালটি ভরাট করে ফেলার কারণে এলাকার পানি নিস্কাশনে ব্যাঘাত সৃষ্টি হবে। পাশাপাশি এই খালের পানি ফায়ার সার্ভিসের অগ্নি-নির্বাপক হিসাবেও ব্যবহৃত হয়। এর ফলে খালটি ভরাট হয়ে গেলে এই সুবিধা থেকেও বঞ্চিত হতে হবে।

এ ঘটনায় কোকিল সুতাকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ফারুক হোসেন স্থানীয় সওজ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ও সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জেলা সওজ সূত্রে জানা যায়, খবরের কাগজে কয়েকদিন ধরে বালুর পাইপ লাগিয়ে খাল ভরাটের সংবাদ দেখে গত ২২ মার্চ তারা জেলা ট্রাক-মালিক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে নোটিশ পাঠিয়েছেন।

সওজ’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া স্বাক্ষরিত ওই নোটিশে বলা হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-সরাইল-মাধবপুর সড়কের মেড্ডা নামক স্থানে (কোকিল সুতাকল সংলগ্ন) সওজ’র ভূমি ভরাটের জন্য ড্রেজিং পাইপ স্থাপন করা হয়েছে। এই খালটি ভরাট করে দখল করা হলে এলাকার পরিবেশ নষ্ট হবে এবং মিলে কর্মরত নারী-পুরুষদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হবে।

ওই ভূমি ভরাট না করা ও ড্রেজিং পাইপ সরিয়ে নিতে বারবার মৌখিক নির্দেশ দিলেও খাল ভরাট বন্ধ করা হয়নি। ওই নোটিশে জেলা ট্রাক-মালিক সমিতির সভাপতি শেখ মো. মহসিন ও সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান তানিমকে তিন দিনের সময় দিয়ে বালুর পাইপ সরিয়ে নিতে বলা হয়। কিন্তু নোটিশ পাওয়ার ৯দিন পেরিয়ে গেলেও বালু ভরাটের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

জেলা সওজ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শ্যামল কুমার ভট্টাচার্য বলেন, আমাদের কাছ থেকে কেউ এই খাল ভরাটের অনুমতি নেয়নি। অবৈধভাবে খালটি ভরাট করার খবর পাওয়ার পরই সংশ্লিষ্ট উপ-সহকারি প্রকৌশলীকে ভরাটকারিদের নাম ঠিকানা সংগ্রহ করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এব্যাপারে জেলা ট্রাক-মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান তানিম খাল ভরাটের কথা স্বীকার করে বলেন, তারা জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ি খাল ভরাটের কাজ শুরু করেছেন।

তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন বলেন, জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় এ ধরনের কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। তবে আগের জেলা প্রশাসকেরা কোন অনুমতি দিয়েছে কিনা তা খোঁজ নিয়ে দেখা হবে।

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...