স্বাধীনতার মাসে পেট্রল বোমায় আগুনে নিহত ট্রাক চালকের লাশ দাফন সম্পন্ন

মো. জাকির হোসেন :–
স্বাধীনতার মাসে বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ খান ফেনীর দাগনভূঞায় দুর্বৃত্তদের ছোড়া পেট্রল বোমার আঘাতে দগ্ধ হয়ে ৪১ ঘন্টা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মেনেছেন। এর আগে গত ১৯ মার্চ বৃহস্পতিবার রাতে কুমিল্লার নিমসার থেকে মাছ নিয়ে নোয়াখালী যাওয়ার পথে রাত ৩ টায় পেট্রোল বোমায় ঝলসে গুরুতর আহত হয়েছিলেন ইউসুছ খান সহ ট্রাকে থাকা ৫ জন।
স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সুত্রে জানা যায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের কাকিয়ারচর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা ট্রাক চালক ইউসুফ খান গত বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় নিমসার বাজার থেকে মাছ নিয়ে নোয়াখালীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে। রাত আনুমানিক ৩ টায় ট্রাকটি ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার মাতুভূঞা ব্রীজের নিকট পৌঁছলে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা ট্রাকটিতে পেট্রল বোমা ছুড়ে মারে। এতে চালক ইউসুফ খান সহ ৫ জন অগ্নিদগ্ধ হয়। পরে স্থানীয়রা পুলিশের সহযোগীতায় উদ্ধার করে তাদের প্রথমে ফেনী ও পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে নিয়ে আসে। পেট্রেল বোমার আঘাতে চালক ইউসুফ খানের শ্বাসনালী সহ শরীরের বেশ কিছু অংশ পুড়ে গিয়ে ছিলো। গত শনিবার দুপুরে ইউসুফ খানের অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে প্রেরন করা হলে রাত সাড়ে ৮ টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে তার মৃত্যু হয়। এদিকে তার মৃত্যুর খবর এলাকায় এসে পৌছলে পরিবার,আতœীয়-স্বজনদের মাঝে কান্নার রোল পড়ে যায়। স্থানীয়দের মাঝে নেমে আসে শোক। খবর পেয়ে তার সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা. স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা সহ জনপ্রতিনিধিরা ছুটে গিয়ে পরিবারের লোকজনদের স্বান্তনা দেয়। গতকাল রোবাবার বিকেল ৪ টায় ঢাকা থেকে নিহতের লাশ গ্রামের বাড়ি মোকাম ইউনিয়নের কাকিয়ার চরে এসে পৌছলে নিহতের পরিবারের সদস্যদের আহাজারি করতে দেখা যায়। ঘটনার আকস্মিকতায় এসময় তার সহযোগী মুক্তিযোদ্ধাদেরও চোঁখের পানি ফেলতে দেখা যায়। পরে বাদ আসর নিজ গ্রাম কাকিয়ারচরে বিকেল ৫ টায় জানাজার নামাজ শেষে রাস্ট্রীয় মর্যাদায় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এসময় বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনম নাজিম উদ্দীন, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জহিরুল ইসলাম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ সাজ্জাদ হোসেন স্বপন, সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা, স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ এলাকার বিপুল সংখ্যক লোক উপস্থিত ছিল। নিহত ট্রাক চালক বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ খান মৃত্যুকালে স্ত্রী, ২ ছেলে ও ১ মেয়ে সহ অসংখ্য আতœীয-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে যান।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...