ড. মূসা বিন শমশের নিয়ে ৫টি ভাষায় নির্মিত হচ্ছে ডকুফিল্ম

নিজস্ব প্রতিবেদক :–
বাংলাদেশে বংশোদ্ভূত বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ অস্ত্র ব্যবসায়ী ও বিজনেস টাইকুন ড. মূসা বিন শমশেরের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন নিয়ে এবার পাঁচটি ভাষায় তৈরি হচ্ছে ডকুফিল্ম “ প্রিন্স মূসা : এক রহস্যের বরপুত্র”। ইতিমধ্যে চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্যের কাজ শেষ হয়েছে। ১ এপ্রিল থেকে ডকুফিল্মটির কাজ শুরু হবে বলে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এস এস কমিউনিকেশন সূত্রে জানা যায়। বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি, হিন্দী, জাপানি ও আরবি ভাষায় ডকুফিল্মটি তৈরি হবে। যা পরবর্তিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার হবে। ডকুফিল্মটির গবেষনা, শ্যুটিং, ডাবিং ও এডিটিং-এর জন্য দেশি-বিদেশি ২৬ জনের একটি ক্রিয়েটিভ টিম কাজ করছে।

Untitled

এশিয়ার অন্যতম সম্পদশালী ও ক্ষমতাবান ড. মূসা বিন শমশেরের রাজসিক জীবন ও লাইফ-স্টাইলের কারনে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ, বিল ক্লিনটন, নেলসন ম্যান্ড্রেলা, বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী মার্গারেট থ্যাচার, স্যার এ্যাডওয়ার্ড হিথ, স্যার ডেভিড ফ্রস্ট, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়ালৎসিন এর মত বিশ্ব বরেণ্য ব্যক্তিরা তাকে প্রিন্স উপাধি প্রদান করেন। বিশ্বের নানা দেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নের মাধ্যমে বিশ্ব দরবারে ড. মূসা তুলে ধরেছেন বাংলাদেশকে। গত একুশে বইমেলায় বাজারে আসা ড. কণিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংকলন ও রচনায় “ প্রিন্স মূসা : আধুনিক সভ্যতার মূর্ত প্রতীক ও রহস্যের বরপুত্র” পাঠকপ্রিয়তা পায়। আত্বজীবনীমূলক এই বইটিতে ড. মূসা বিন শমশেরের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের নান দিক তুলে ধরার পাশাপাশি বিশ্ব বরেণ্য ব্যক্তিদের সঙ্গে তাঁর রহস্যঘেরা বেশ কিছু দুর্লভচিত্র স্থান পায়। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে ফুজি টিভি নির্মিত বিশ্বের ১০০ ক্ষমতাধর ব্যাক্তিদের নিয়ে নির্মিত ডকুমেন্টারিতেও প্রিন্স মূসার লাইফ স্টাইল নিয়ে নির্মিত অংশটি বিশ্বব্যাপী প্রশংসা কুড়ায়। বাংলাদেশে জন্ম নেয়া আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসায়ী রহস্যমানব প্রিন্স মূসার রাজকীয় জীবন-যাপন নিয়ে ২০০৮ সালে প্রচ্ছদ করেছিলো লন্ডনের সানডে টেলিগ্রাফ। বিস্তারিত জানতে: www.princemoosa.com

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...