অতিতের ন্যায় জাতির বর্তমান সংকট নিরসনে যুবসমাজকেই এগিয়ে আসতে হবে

এবিএম আতিকুর রহমান বাশার :—

নাগরিক সুবিধা বঞ্চিত ও অবহেলার শিকার দেবিদ্বার পৌরবাসীর উন্নয়নে বিভিন্ন দাবী দাওয়া বাস্তবায়নের দাবীতে পৌর প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে স্মারক লিপি প্রদান করেছে বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন দেবিদ্বার শাখা।
বৃহস্পতিবার দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষন ও করনীয় শীর্ষক এক আলোচনা সভা শেষে দুপুর একটায় দেবিদ্বার পৌর এলাকার জণদূর্ভোগ খ্যাত দেবিদ্বার-চান্দিনা সড়ক সংস্কার, পৌরএলাকার সকল গর্ত ও খানা-খন্দ যুক্ত সড়ক সংস্কার করে চলাচলের উপযোগী করা, পয়নিষ্কাশনের নালা তৈরী ও ময়লা-আবর্জনার ডাস্টবিন, ড্রেনগুলো নিয়মিত পরিস্কার করা, জনবহুল এলাকা নিউমার্কেট মুক্তিযুদ্ধ চত্তর, হাসপাতাল গেইট, কলেজ রোডসহ বিভিন্ন এলাকার জানজট নিরসন, সিএনজি ষ্ট্যাশনের নির্ধারিত স্থান নির্নয়, মানব দেহের ক্ষতিকারক রেডিয়েশনযুক্ত মোবাইল টাওয়ারগুলো বাসা-বাড়ি ও ছাদ থেকে সরিয়ে নিরাপদ জায়গায় স্থান্তরিত করা, সকাল ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত কলেজ রোডসহ উপজেলা সদরে মাটিবহনকারী ও বিভিন্ন মালামাল বহনকারী ট্রাক্টর, ট্রাক ও ভারী জানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ করাসহ নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতকরনে বিভিন্ন দাবী দাওয়া সম্বলিত একটি স্মারকলিপি পৌর প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলামের কাছে ওই স্মারক লিপি প্রদান করেন।
পৌর প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলামেপৌর প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ
সাইফুল ইসলাম স্মারক লিপিতে উল্লেখিত সকল দাবী জণগুরুত্বপূর্ণ আখ্যা দিয়ে তা বাস্তবায়নে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহনের আশ্বাস দিয়ে বলেন, পৌরসভার বাজেট স্বল্পতার কারনে গুরুত্বানুসারে দাবীগুলো একসাথে বাস্তবায়ন সম্ভব না হলেও তা পর্যায় ক্রমে বাস্তবায়নের আশ্বাস দেন।
বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন দেবিদ্বার শাখার উদ্যোগে সকাল ১০টায় দেবিদ্বার মেরিট হোম কিন্ডার গার্ডেন স্কুল মিলনায়তনে দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষন ও করনীয় শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যুবইউনিয়ন উপজেলা সভাপতি উপাধ্যক্ষ এটিএম সাইফুল ইসলাম মাসুমের সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক মোঃ শাহজাহান সরকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ওই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি কুমিল্লা জেলা সভাপতি এবিএম আতিকুর রহমান বাশার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি পরেশ কর, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন কুমিল্লা জেলা সভাপতি একেএম মিজানুর রহমান কাউছার, বাংলাদেশ কৃষক সমিতি জেলা নেতা একেএম ফজলুল হক খান রাসেল, জেলা গণতান্ত্রিক আইনজীবী পরিষদের সদস্য এডভোকেট সূদীপ রায়। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, যুব নেতা মোঃ হুমায়ুন কবির ভূইয়া, ডাঃ মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ বিল্লাল হোসেন, মোঃ আল আমিন, আইরিন আক্তার, মৌসুমি আক্তার, মোঃ কামরুল হাসান সূর্য্য, মোঃ ইলিয়াস জাভেদ রসুলী, শাহনাজ বেগম, আজিজুল হক ডালিম, ছানাউল্লাহ, আজহারুল ইসলাম মজনু প্রমূখ।
বক্তারা বলেন, যুবসমাজকে জাতির সংকটকালে অর্থাৎ যেভাবে ৫২, ৬৬, ৬৯, ৭০, ৭১. এবং ৯০’র গণআন্দোলনের ধারাবাহিকতায় যেভাবে দেশের বিরাজমান সংকট নিরসনে ভূমিকা রেখেছে, আজকের যুবসমাজকে সেই ধারাবাহিকতায় বর্তমান সংকট নিরসনে অসাম্প্রদায়িক ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। হরতাল অবরোধের নামে একদল ককটেল বোমা হামলায় নিরিহ মানুষ হত্যা রাষ্ট্রের সম্পদ ধ্বংসসহ দেশকে জঙ্গী তৎপরতায় তালেবানী রাষ্ট্র বানাবার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত, অন্য দল রাজনৈতিক কর্মকান্ড বন্ধ করে গণতান্ত্রিক পরিবেশ ধ্বংস করে গৃহযুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। জণগনের আজাব খ্যাত জোট-মহাজোটের ক্ষমতা দখলের অশুভ রাজনীতির হাত থেকে গণতন্ত্র, রাষ্ট্র ও রাষ্ট্রের জণগন, রাষ্ট্রের সম্পদ রক্ষায় বিকল্প গণতান্ত্রিক প্রগতিশীল বলয় গড়ে তোলার আহবান জানান। জঙ্গী জামায়েত-শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধসহ মানবতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কার্য ও রায় বাস্তবায়নে সরকারের প্রতি জোর আবেদন জানান।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...