দেবিদ্বারে দোকান কর্মচারীর লাশ উদ্ধার

মোঃ আক্তার হোসেন :–

রোববার বিকেলে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের পার্শ্বে দেবিদ্বার উপজেলার সাহারপাড় গ্রামের একটি নির্মানাধিন পরিত্যাক্ত সিএনজি পাম্পের পার্শ্বে ফাহাদ(২০) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ। নিহত ফাহাদ চান্দিনা উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের লগড্ডা গ্রামের হুমায়ূন কবিরের ছেলে বলে পরিচয় পাওয়া যায়। ফাহাদ ইলিয়টগঞ্জ বাজার সংলগ্ন লাজৈর গ্রামের আবু তাহের’র বাড়িতে ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন এবং ইলিয়টগঞ্জ বাজারের স্বপন মিয়ার অটো রিক্সা পার্টসের দোকানে চাকুরী করতেন বলে জানা যায়।
স্থানীয়রা জানান, কুটুম্বপুর বাস স্টেশনের পশ্চিম-উত্তর পাশে ৫/৬ বছর যাবৎ একটি সিএনজি পাম্পের নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকায় ওই স্থানটির এক কোনে এলাকার লোকজন কয়েকটি খড়ের গাদা (স্তুপ) করে রাখে। ওই জায়গাটি দেবিদ্বার উপজেলার সানারপাড় গ্রামে অবস্থিত। রোববার বিকেলে খড়ের মালিক স্তুপ থেকে খড় নেওয়ার সময় এক যুবকের মরদেহ দেখে স্থানীয় লোকজনকে খবর দেয়। ঘটনাটি দ্রুত লোক মুখে ছড়িয়ে পড়ায় উৎসুক জনতাদের মধ্যে অনেকে নিহতের মরদেহ সনাক্ত করতে আসেন। তার সাথে একটি হাত ঘড়ি এবং একটি টাচ মোবাইল পাওয়া যায়। মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে লাশের পরিচয় জানার পর নিহতের পিতা-মাতা ও স্বজনেরা ঘটনাস্থল ছুটে আসেন।
নিহতের বোন জামাই মহিউদ্দিন জানান, বেলা ২টা থেকে ইলিয়েটগঞ্জ তার কর্মস্থল থেকে নিখোঁজ হয়, বিকেল ৫টায় জানতে পারেন তার মরদেহ সাহারপাড় পাওয়া গেছে। কি করনে তার মৃত্যু হয়েছে তার কারন জানা যায়নি।
সংবাদ পেয়ে চান্দিনা থানার ওসি(তদন্ত) ও দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক(এস,আই) শামিম আহমেদ একদল পুলিশ নিয়ে সন্ধ্যার পর ঘটনাস্থলে পৌঁছান। ছোরতহাল রিপের্টে নিহত যুবকের শরিরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। সে কোথায় যাচ্ছিল, কারা ডেকে নিয়ে হত্যা করেছে কিংবা মৃগিরোগে আক্রান্ত বা হৃদক্রিয়াযন্ত্র বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে কিনা এ বিষয়ে নিশ্চিত কোন ধারনা পাওয়া যায়নি।
দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক(এস,আই) শামিম আহমেদ জানান, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর তার মৃত্যুর কারন সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে, শরিরে কোন আঘাত বা জখমের চিহ্ন না থাকায় এমূহুর্তে কোন মন্তব্য করতে চাননি তিনি।
স্থানীয় ভানী ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মোঃ জহিরুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলটি চান্দিনা ও দেবিদ্বারের সীমান্তবর্তী এলাকা। তবে ভৌগলিক সীমারেখায় স্থানটি দেবিদ্বার উপজেলার সাহারপাড়া গ্রামের হওয়ায় দেবীদ্বার থানা পুলিশে খবর দেই।
দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান সন্ধ্যায় জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। শোনেছি শরিরে জখমের চিহ্ন পাওয়া যায়নি, ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারন সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...