কুমিল্লার মুরাদনগরে মাদ্রাসার সভাপতি’র বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

মোঃ শাকিল মোল্লা, কুমিল্লা থেকে :–

কুমিল্লার মুরাদনগরে ডালপা নেদায়ে ইসলাম দাখিল মাদ্রাসার অবৈধ শিক্ষক নিয়োগ বাতিল। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ঘুষ লেনদেন করে অবৈধ ভাবে শিক্ষক নিয়োগ দেয়ায় মাদ্রাসার সভাপতি মতিউর রহমান ভূইয়া’র বিচার এবং সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগের দাবীতে বুধবার মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা। মানবন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মালু মিয়া, দাতা সদস্য মোঃ নুরু মিয়া, হাজী আঃ জব্বার, বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিউল্লাহ, বীর মুক্তিযোদ্ধা এম.এ মন্নান, মোঃ স্বপন, আঃ কুদ্দুস, মোঃ বাচ্চু মোল্লা, মোঃ গরিব হোসেন মেম্বার, মোঃ শাহ আলম চৌধুরী, নুরুল হক মোল্লা, লিল মিয়া মোল্লা, শহিদ মিয়া, মোঃ শামিম, মোঃ দেলোয়ার হোসেন, সুমন মুন্সী, জালাল হোসেন, নজুরুল ইসলাম খন্দকার, বাছির মিয়া, মোঃ জহিরুল হক, মোজিবুর রহমান, দুলাল মিয়া, নবী মোল্লা, জাহাঙ্গীর আলম, আবু তাহের মেম্বার, নজরুল মুন্সী, সাবেক সেনা সদস্য জলিল মোল্লা, অবসরপ্রাপ্ত বিজিবি কামাল হোসেন, আঃ আলিম সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
মানবন্ধন শেষে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তাগন অভিলম্বে ওই অবৈধ নিয়োগ বাতিল করে পুনরায় নিয়োগের দাবী জানান এবং অভিযুক্ত সভাপতি পদত্যাগসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানান।
উল্লেখে, ডালপা নেদায়ে ইসলাম দাখিল মাদ্রাসায় নিয়োগ নিয়ে অনিয়ম এর অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে স্থানীয় গ্রামবাসীর পক্ষে মোঃ দেলোয়ার হোসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয় গত ১৮ অক্টোবর ২০১৪ইং ‘দৈনিক ইনকিলাব’ ও কুমিল্লা কাগজ পত্রিকার মুরাদনগর উপজেলার ঢালপা নেদায়ে ইসলাম দাখিল মাদ্রাসার জন্য বিএসসি শিক্ষক, সহকারী সুপার, অফিস সহকারী এ ৩ পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। উক্ত ৩ পদে মোট ১৫ জন প্রার্থী আবেদন করেন। মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মতিউর রহমান ভূইয়া (মতি ভূইয়া) আবেদনের পর অফিস সহকারী পদে ৩ লক্ষ টাকা, সহ-সুপার পদে আড়াই লক্ষ টাকা, বি.এস.সি পদে মোটা অংকের টাকা নিয়ে প্রার্থী চূড়ান্ত করেন। পরবর্তীতে গত ১৪ নভেম্বর ২০১৪ইং শুক্রবার লোক দেখানো নিয়োগ পরীক্ষায় প্রার্থীদের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হয়। সভাপতির এ ঘটনায় স্থানীয় সুশীল সমাজের মাঝে চরম ক্ষোভ দেয়া দিয়েছে। এ ঘটনায় পাক দেওড়া গ্রামের হাকিম মোল্লার পুত্র মো: বাচ্চু মোল্লা বাদী ১৩ নভেম্বর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিতের জন্য ১টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এবং স্থানীয় ঢালপা গ্রামবাসীও একই অভিযোগ এনে নিয়োগ বোর্ডের কাছে পৃথক লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য মুরাদনগর উপজেলা শিক্ষা অফিসার এ.এন.এম মাহবুব আলম কে দায়িত্ব প্রদান করেন। গত ১৩ জানুয়ারি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার স্থানীয় গ্রামবাসীসহ গন্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থীতিতে বিষয়টি সরেজমিন তদন্ত করেন।
এ বিষয়ে ডালপা নেদায়ে ইসলাম দাখিল মাদ্রাসায় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মতিউর রহমান ভূইয়া সাথে যোগাযোগ করলে তিনি অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে মুরাদনগর উপজেলা শিক্ষা অফিসার এ.এন.এম মাহবুব আলম জানান, প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের বিষয়টি অনেকেই বলেছেন। অভিযোগের বিষয়টি আরো জাচাই-বাছাই শেষে আমি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করিন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply