তীব্র শীতে নবীনগর মায়েদের বানানো পিঠার প্রস্ততি

সাধন সাহা জয়: নবীনগর :–

গোলায় উঠেছে নবান্নের ধান। মায়েরা ঢেঁকিতে গুড়া করছেন আতপ চাল। এ চালের গুড়া আর গুড়ে তৈরি হবে নানা পদের পিঠা।

শীতের সকালে বা সন্ধায় পিঠা খাইতে ছোট বড় সকলেরই প্রিয়। সেই পিঠা বানিয়ে মায়েরাও ছেলে-মেয়ে সহ স্বামী-আত্বীয়স্বজনদের মাঝে বিলিয়ে আনন্দ পাই। আমাদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম সহ শহরের বিভিন্ন স্থানে জমে উঠেছে পিঠার হাট।

প্রতিযোগিতার মত বেড়ে উঠেছে এই পিঠা বানানোর ব্যবসা। সকাল থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত চলে পিঠার বাজার। প্রতিদিনই আতপ চালের তৈরি পিঠা ছুঁইপার থেকে শুরু করে সরকারী, বে-সরকারী কর্মকর্তা সহ সুশিল সমাজের লোকজন পর্যন্ত আসে সেই পিঠা খেতে ।

নবীনগর ৪নং ওয়ার্ড বাসিন্দা করিমস্ া(বউ) বাজারে শুক্রবার শীতের সকালে পিঠা তৈরীর সময় মৃত অমর চন্দ বর্মনের স্ত্রী ফুলদাসী রানী বর্মন বলেন, বাবারে আমরা গরিপ মানুষ, কোনমতে সংসার চালাচ্ছি শীত সহ সারা বছরই অনেক ধরনের পিঠা বানিয়ে সংসার চালামো।

অন্যান্য ব্যবসার থেকে পিঠা বানাতে খরচ কম হওয়াতে তারা সবাই এই ব্যবসা শুরু করে।

বৃহস্পতিবার রাত ৮ টায় শহরের এক পিঠা ব্যবসায়ী কামরুল হাছান বলেন এই পিঠা হল শীতের বাপা, চিতল পিঠা। বিভিন্ন ধরনের (শুটকি, শর্শেবাটা, ধনিয়াপাতা) বর্তা দিয়ে বা গুড়-নারিকেলের তৈরি এই পিঠা সবাই পছন্দ করে। শীত চলে গেলে এই ব্যবসা করবোনা। শীতে রিক্সা চালানো খুবই কষ্ঠ তাই এই পিঠা বানাতে অল্প খরচ হওয়াতে পিঠার ব্যবসা শুরু করছি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply