মনোহরগঞ্জের নরপাইয়া ব্রিজটি পুন:নির্মাণের দাবি এলাকাবাসীর

আকবর হোসেন,মনোহরগঞ্জ প্রতিনিধি:–

মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের নরপাইয়া গ্রামের ব্রিজটি ভেঙ্গে যাওয়ার কারণে যানবাহন চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। ব্রিজটি গত ১০ বছরেও মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হয়নি। এ ব্রিজটির উপর দিয়ে হাসনাবাদ থেকে নোয়াখালীর চাটখিলে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে। তাছাড়াও হাসনাবাদের নরপাইয়া, কাঁশই, তালতলা গ্রামের মানুষের চাটখিলের সাথে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে এ ব্রিজ। কিন্তু ব্রিজটি ভেঙ্গে যাওয়ার কারণে মানুষ যাতায়াতে সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েছে। স্থানীয়রা জানায়, ২০০৪ সালের বন্যার সময় দক্ষিণ দিক থেকে অপ্রশস্ত খালের পানির স্রোতে ব্রিজটির মাঝের খুঁটিটিতে ফাটল দেখা দেয়। এরপর ব্রিজটির দুই পাশের খুঁটিগুলোতেও ফাটল দেখা এবং একটি খুঁটি ভেঙ্গে যায়। এছাড়াও ব্রিজটির উপরের দুই পাশে ভেঙ্গে যায়। ৩০ ফুট দৈর্ঘ্য এ ব্রিজটির খুবই নাজুক অবস্থা। যে কোন সময় ভেঙ্গে যেতে পারে। ব্রিজটি নিচু হওয়ার কারণে সামান্য বৃষ্টি এলে খালের পানি বেড়ে ব্রিজের উপর হাটু সমান পানি উঠে যায়। ব্রিজটির নাজুক অবস্থার কারণে শিশু, বৃদ্ধসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ব্রিজ পারাপার হতে হচ্ছে হাসনাবাদ ও চাটখিলের মানুষদের। বিশেষ করে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা অন্য পথ ব্যবহার করার ফলে সময়মত পৌঁছাতে পারছে না। তাছাড়াও অসুস্থ ব্যক্তিদেরকে নিয়ে ভিন্ন সড়কে যাতায়াতের কারণে সঠিক সময়ে তারা চিকিৎসা নিতে পারছে না। ভূক্তভোগী স্থানীয়রা জানায়, ভঙ্গুর অবস্থায় দীর্ঘ সময় পার হলেও ব্রিজটি রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কারের কোনো ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ। ফলে যাতায়াতের অযোগ্য হয়ে পড়েছে ব্রিজটি। ব্রিজ ধ্বসে জীবনহানীর আশাঙ্কাও রয়েছে। তাই ব্রিজটি পুন:নির্মাণ করে দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছে এলাকাবাসী।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply