বুড়িচংয়ে খুন হওয়া কিশোরের বাড়ী বরুড়া : ফেইসবুকে ছবি দেখে লাশ সনাক্ত

মো.জাকির হোসেন :–

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার লোয়ারচর নাগিনী জলাশয় থেকে উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত কিশোরের পরিচয় পাওয়া গেছে। ফেইসবুকে ছবি দেখে নিহতের লাশ সনাক্ত করেছে পরিবার। সে বরুড়া উপজেলা সদরের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে।
নিহতের দাদা মোঃ দুলাল মিয়ার সাথে মোবাইল ফোনে আলাপ কালে জানায়, নিহত কিশোর বরুড়া উপজেলা সদর গ্রামের বাতানবাড়ী এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মোঃ রাফি (১৬)। সে স্থানীয় বাজারের একটি ওয়ার্কসপে কাজ করতো। কিছুদিন পূর্বে ওয়ার্কসপের মালিকের সাথে কথা কাটাকাটি হওয়ায় সে ওয়ার্কসপের কাজ ছেড়ে দেয়। গত বুধবার বিকেলে সে বাড়ী থেকে বাজারের উদ্দেশ্যে বাহির হয়ে আসে। পরে ওই দিন রাতে আর বাড়ী ফেরেনি। সে মাঝে মধ্যে বাড়ীতে বাহিরে থাকত, যার ফলে বাড়ীর লোকজন তাকে খুজা খুজি করেনি। পরে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে তার চাচা ফেইসবুকে একটি লাশের ছবি দেখতে পায়। সে বাড়ীতে খোজ নিয়ে দেখে রাফি দু’দিন ধরে বাড়িতে আসেনি তাই ফেইসবুকের ছবির সাথে মিলিয়ে নিহতের লাশ সনাক্ত করে। পরে বুড়িচং থানাধীন দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীতে খবর নিয়ে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের মর্গে গিয়ে নিহতের পরিবার লাশটি সনাক্ত করে। নিহতের পিতা জাহাঙ্গীর আলম ও মা চট্টগ্রামে একটি কোম্পানিতে চাকুরীরত আছে। নিহত রাফি দুই ভাইয়ের মধ্যে বড় ছিল। পরে গতকাল শুক্রবার বাদ জুমা নিহতের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার ভোরে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের লোয়ারচার গ্রামে নাগিনী জলাশয়ে এক ধান ক্ষেতে লাশ পরে থাকতে দেখে পার্শ্ববর্তী লোকজনদের জানায়। খবর পেয়ে বুড়িচং থানাধীন দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ী ইনচার্জ এস আই তৌহিদুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এ বিষয়ে এস আই তৌহিদ বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে বুড়িচং থানায় অজ্ঞাত নামা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply