নবীনগরে জরুরি প্রসূতি সেবা কর্মসূচি চালু না থাকায় প্রসূতি মহিলাদের ভোগান্তি

সাধন সাহা জয়: নবীনগর :–

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সহ বিভিন্ন উপজেলার সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গুলিতে জরুরি প্রসূতি সেবা কর্মসূচি চালু থাকলেও জেলার ৬ লক্ষ জনসংখ্যা অধ্যুষিত নবীনগর উপজেলার ৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরি প্রসূতি সেবা কর্মসূচি চালু না থাকায় স্থানীয় গর্ভবতী মহিলারা দীর্ঘদিন যাবত প্রচন্ড ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, বিদেশী অর্থানুকল্যে চালুকৃত জরুরি প্রসূতি সেবা কর্মসূচির আওতায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত গাইনি সার্জন ও এনেসথেসিস্টের তত্বাবধানে বিনামূল্যে ওষুধ সহ গর্ভবতী মহিলাদরে প্রসব করানো হয় এবং তাদের মাথাপিছু দু’হাজার টাকার আর্থিক সাহায্য দেয়া হয়। এই কর্মসূচি নবীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চালু না থাকায় এলাকার হত দরিদ্র গর্ভবতী মহিলারা এ সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। যার ফলে অনেক গর্ভবতী মায়েরা স্থানীয় প্রাইভেট কমপ্লেক্সে গুলোতে চিকিৎসা নিতে এসে অতিরিক্ত অর্থ ব্যায় সহ মৃত্যুর দিকে ঝুকে পড়ছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো: সাদেক মিয়া জানান যে, এ কর্মসূচি চালুর জন্য উপজেলা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বহু পূর্বে লিখিত আবেদন সহ স্থানীয় সংসদ সদস্যের ডি.ও লেটার প্রদান করলেও অদ্যবধি কোন ফলপ্রসূ হয়নি।

নবীনগর স্বাস্থ কমপ্লেক্সে একজন চিকিৎসক এনেসথেসিয়ার ওপর প্রশিক্ষণ গ্রহন করলেও এ স্বাস্থ কমপ্লেক্সে কর্মসূচিটি চালু না থাকায় তাকে পার্শ্ববর্তী বাঞ্ছারামপুর সদর হাসপাতালে বদলি করা হয়েছে।

সুশীলসমাজ সহ এলাকাবাসী দাবি, স্থানীয় নবীনগর উপজেলার সদর স্বাস্থ কমপ্লেক্সে অবিলম্বে এ কর্মসূচি চালূর দাবি সহ অসহায় মায়ের জীবন বাচাঁনোর জন্য এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছে।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply