ভিক্টোরিয়া ডিগ্রি শাখা থেকে শাসনগাছা সড়কটির বেহাল দশা!

আজিম উল্যাহ হানিফ:–

বৃহত্তর কুমিল্লার প্রাচীন বিদ্যাপীঠ খ্যাত ঐতিহ্যবাহী কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ ডিগ্রি শাখার ধর্মপুর থেকে শাসনগাছার ব্যস্ততম সড়কটির মধ্যে ছোট বড় খানাখন্দে পরিণত হয়ে দীর্ঘদিন যাবত বেহালদশায় পরিণত হয়ে আছে। সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন নগরীর বিভিন্ন স্থানে জনসাধারন,শিক্ষার্থী,চাকুরিজীবীসহ নানা পেশার মানুষ ছোট বড় বিভিন্ন যান বাহনে করে চলাচল করে আসছে মারাত্মক ঝুকিঁ নিয়ে। এছাড়া প্রতিদিন ওই সড়কে বিভিন্ন যানবাহনে ছোট বড় দুর্ঘটনা প্রায় ঘটছে। সড়কের চিত্র দেখলে মনে হয় এ অঞ্চলের সড়কগুলোর যেন দেখার কেউ নেই,অভিভাবকহীন বলে মনে হচ্ছে।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়,কুমিল্লার শতবর্ষী প্রাচীন বিদ্যাপীঠ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ ডিগ্রি শাখা-শাসনগাছা সড়ক, বাদশামিয়া বাজার-ধর্মপুর-দৌলতপুর-কোটবাড়ী বিশ্বরোড, ধর্মপুর-খেতাসার, ধর্মপুর-কাশিনাথপুর-দিদারমাকের্ট, কলেজ-অশোকতলা সড়ক গুলোসহ আশেপাশের বিভিন্ন সড়কের মধ্যে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।
ব্যস্ততম এই সড়কগুলো দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার রিক্সা,অটো-রিক্সা,সিএনজিসহ বিভিন্ন যানবাহন মারাত্মক ঝুঁিক নিয়ে যাত্রীবহন করে চলাচল করছে। সড়কের মধ্যে গর্তের ভিতর বৃষ্টির পানি জমে ছোট ছোট পুকুরের মত আকার ধারণ করেছে। এ সমস্ত বৃষ্টির পানিতে জমে থাকা গর্তের মধ্যে পড়ে পি-কাপ ভ্যান,সি এনজি অটো-রিক্সাসহ বিভিন্ন যানবাহন দূর্ঘটনার শিকার হয়। এতে অনেক যাত্রী ও যানবাহনের ক্ষতি সাধিত হয়। অপরদিকে এ সমস্ত সড়ক দিয়ে কলেজের ছাত্র ছাত্রী,শিক্ষক ও বিভিন্ন পেশার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা মারাত্মক ঝুকিঁ নিয়ে চলাচল করছে। এ সমস্ত সড়ক দিয়ে যানবাহনও যাত্রীরা চলাচল একেবারে কমে গেছে। অপরদিকে বাধ্য হয়ে ভিক্টোরিয়া কলেজ সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, শিক্ষকসহ বিভিন্ন পেশার লোকজন ওই সড়ক দিয়ে রিক্সাও অটো রিক্সা দিয়ে চলাচল করছে। এতে যানবাহনের চালকেরা অতিরিক্ত ভাড়া যাত্রীদের কাছ থেকে জোরপূর্বক আদায় করে নিচ্ছে। এ নিয়ে যাত্রী ও চালকদের মধ্যে প্রতিনিয়তই বাকবিতন্ডা ঘটছে। সড়কগুলোর অবস্থা মারাত্মক বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। এসড়ক গুলো দিয়ে অধিকাংশ যাত্রীবাহী যানবাহন চলাচল প্রায় বন্ধ । মহানগরীর কান্দিরপাড়সহ গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন এলাকা থেকে ভিক্টোরিয়া কলেজ এলাকায় যানবাহন গুলো যাত্রী নিয়ে যেতে অনীহা প্রকাশ করে। সড়কগুলোর করুণ অবস্থার কারণে স্থানীয় জনসাধারন ও বিভিন্ন পেশার লোকজনেরাও ঝুঁিক নিয়ে পায়ে হেঁেট গন্তব্য এলাকায় যায়। এলাকার ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে বলেন দেশের অন্যতম একটি বিদ্যাপীঠ এই এলাকায় প্রতিষ্ঠিত,এছাড়া এ এলাকায় হাজার হাজার বিভিন্ন পেশার লোকজনেরা বসবাস করছেন। অথচ এ এলাকার ব্যস্ততম সড়কগুলো দিয়ে অনেক সময় পায়ে হেটেঁ অধিকাংশ লোকে বাসায় পৌছে। পায়ে হেটেঁ এই সড়কগুলোতে চলাচল করাও ঝুকিঁপূর্ণ হয়ে আছে। সড়কগুলোর চিত্র এমনি যে মনে হয় এ এলাকায় কোন অভিভাবক বা জনপ্রতিনিধি নাই। এলাকাবাসীর ও ভিক্টোরিয়া কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের জোর দাবি সড়কগুলো যেন অতিদ্রুত সংস্কার করে জনগনের দু:খদুদর্শা থেকে মুক্তি দেয়।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply