কুমিল্লায় জমে উঠছে শিল্প ও বাণিজ্য মেলা

আজিম উল্যাহ হানিফ:–

কুমিল্লা মহানগরীর স্টেডিয়াম মাঠে ধীরে ধীরে জমে উঠছে শিল্প ও বাণিজ্য মেলা। গত ১৭ অক্টোবর থেকে এক মাস ব্যাপী এ শিল্প ও বাণিজ্য মেলার শুভ উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি হিসেবে কুমিল্লা-৬ আসনের এম.পি আকম বাহাউদ্দিন বাহার। উদ্বোধনের পর থেকে আজ তিনদিন ধরে স্টেডিয়াম মাঠের সেই বানিজ্য মেলায় ধীরে ধীরে ক্রেতার সমাগম হচেছ বলে জানান দোকানদারও ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে আসা কয়েকজন শিক্ষার্থী।
মেলা ঘুরে জানা যায়,দেশের দূর-দুরান্ত থেকে অঞ্চল থেকে ব্যবসায়ীরা মেলায় বিভিন্ন মালামাল নিয়ে ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান করে মেলায় উঠেছে।মেলায় শিশুদের খেলনা থেকে শুরু করে বাসা বাড়ির নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী পাওয়া যাচ্ছে। সকাল ১০ টা থেকে রাত্র ১০ টা পর্যন্ত প্রতিদিন(শুক্রবার সহ)মেলায় দর্শনাথী ও ক্রেতাদের জন্য খোলা থাকে।তবে মেলায় প্রবেশ ফি মাত্র ১০ টাকা।এ দিকে ছোটরা এলাকা থেকে মেলায় আসা দর্শনাথী নাসরিন আক্তার রুমি জানান,তিনি তিন ছেলে মেয়ে এবং আত্মীয় স্বজন সহ ৬-৭ জন মেলায় এসেছেন।প্রত্যেককে ১০ টাকা হারে টিকেট ফি দিতে হয়েছে। তিনি আরো বলেন যে,মেলায় যথেষ্ঠ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হলেও টিকেট যদি সর্ম্পূণ ফ্রি করে দেওয়া হতো, তাহলে ক্রেতার সংখ্যা আরো বেড়ে যেত।
অপরদিকে মেক্সিমাস মোবাইল কোম্পানির এরিয়া ম্যানাজার জহিরুল ইসলাম কায়কোবাদ জানান, মেলায় সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের মনিটরিং করায় যথেষ্ঠ নিরাপত্তা পাচ্ছেন বলে মনে করছেন। পুরো মেলা জুড়ে রয়েছে সিসি ক্যামেরার মনিটরিং।তিনি এসেছিলেন মেলা থেকে ক্রোকারিজ জাতীয় সামগ্রী ক্রয় করতে।তিনি কিছুটা অভিযোগের সুরে বলেন,কিছু মালামালের দাম ব্যবসায়ীরা বেশি চাচ্ছে।
এদিকে মেলার দর্শনাথীরা ঘুরে ক্লান্ত ও ক্ষুধার্থ হলে তাদের জন্য রয়েছে স্বল্প মূল্যে মেলার পশ্চিম পাশে শাহ আলমের ভাতের হোটেল।এখানে স্বল্প মূল্যে যা পাওয়া যাচ্ছে তা হলো সকালে নাস্তা হিসেবে পরাটা, ভাজি, ডাল, ডিম, সমুসা, সিংগারা, দুপুরের খাবারে রয়েছে ভাত, মাছ, মুরগীর মাংস, গরুর মাংস, সবজি, বিভিন্ন আইটেমের ভর্তা, ডাল ফ্রি। এছাড়া তেহারি, বিরিয়ানী ও স্বল্প মূল্যে বিক্রয় করে। তেমনি বিকেলের নাস্তা রাতের খাবার ও একই নিয়মে বিক্রয় করেন বলে হোটেল মালিক শাহ আলম জানায়।
শিশুদের জন্য রয়েছে বিনোদনের ব্যবস্থাঃ শিশুদের জন্য রয়েছে আনন্দদায়ক ব্যবস্থা। যেমন- নাগোর দোলা, চরকি, দোলনা, ট্রেন গাড়ি, থ্রি-ডি মোভিসহ শিশুদের আকর্ষনীয় বিনোদনের কিছু ব্যবস্থা রয়েছে। এ সমস্ত খেলনা, নাগরদোলা, ট্রেন গাড়ি চড়ে শিশুরা দারুণ ভাবে আনন্দ উপভোগ করছে।
অপরদিকে, মেলায় দর্শনাথীদের নতুনভাবে আকর্ষণ করছে তিন চারটি ব্লেজারের দোকান।দোকানিরা ও মেলার আয়োজকরা জানিয়েছে পুরুষদের সর্বনিম্ন ১৮০০ থেকে ৪০০০ টাকা মুল্যের ব্লেজার পাওয়া যায়। শিশুদের গায়েরও ব্লেজার রয়েছে। অন্যদিকে মহিলাদের জন্য রয়েছে থ্রি-পিছ, টু-পিছ, ছাড় দেওয়া কাপড়। আরো রয়েছে মহিলাদের বিভিন্ন ব্রান্ডের শাড়ি কাপড়। ক্রেতারা যার যার পছন্দের পণ্য সামগ্রী ক্রয় করে বাসা বাড়িতে ফিরে যাচ্ছেন।
মেলায় পুরুষদের চেয়ে বেশি দর্শনার্থী হিসাবে আসছেন মহিলাও শিশুরা। ব্যবসায়ীরাও মহিলাদের নিকট বিভিন্ন মালামাল বিক্রয় করতে বেশি স্বাচ্ছন্দবোধ করছেন।
অপরদিকে মেলার আয়োজক দেলোয়ার হোসেন জাকির জানান, মেলায় ক্রেতাদের স্বল্প মূল্যে বা সকল ক্রেতার চাহিদা বিবেচনা করে সাধ্যের মধ্যে মালামাল ক্রয় করতে পারে। তিনি আরও জানান যে, মেলায় উন্নতমানের বা কোয়ালিটি সম্পন্ন মালামাল ব্যবসায়ীরা বেচা-কেনা করছেন। তবে মেলার দর্শনার্থী ও ক্রেতা-বিক্রেতাদের নিরাপত্তার জন্য রয়েছে সিসি ক্যামেরার মনিটরিং ব্যবস্থা। যে কোন কাস্টমার ও দর্শনার্থীর সহযোগিতার জন্য আমরা সার্বক্ষণিক ভাবে প্রস্তুত আছি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply