স্কুল ছাত্র নাজমুল’র ঘাতকদের গ্রেফতারের দাবিতে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ

মো.জাকির হোসেন :–

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার কোরপাই এ চান্দিনার মেধাবী স্কুল ছাত্র মো.নাজমুল হাছানের হত্যার প্রতিবাদ ও হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে স্থানীয় এলাকাবাসী।
সোমবার সকালে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের বুড়িচং এর কোরপাই নামক স্থান থেকে চান্দিনার বড়গোবিন্দপুর এলাকা পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে। এ সময় মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দীর্ঘ পৌনে ১ ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ থাকায় প্রায় ৬ কিলোমিটার ব্যাপী যানজটের সৃষ্টি হয়। বিক্ষোভকারীরা নাজমুলের ঘাতক সুমন ও তার সহযোগীদেরকে গ্রেফতারের দাবীতে মুর্হুমুহু স্লোগানে এলাকা প্রকম্পিত করে তুলে। ক্ষোভে ফেটে পড়ে রাস্তায় শুয়ে পরে বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী। পরে হাইওয়ে আমতলী ফাড়িঁপুলিশ ঘটনাস্থলে এসে যান চলাচল স্বাভাবিক করে। সড়ক অবরোধকারী স্থানীয় এলাকাবাসী জানান-অবিলম্বে নাজমুলের হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির ব্যবস্থা না হলে আমরা আরো কঠিন আন্দোলন গড়ে তুলব।
সরেজমিনে ঘুরে একাধিক সূত্রে জানা যায়, নাজমুল হত্যার প্রধান আসামি সুমন মিয়া একজন মাদক ক্যারিং ম্যান হিসেবে এলাকায় পরিচিত। তার একটি সংঘবদ্ধ দল রয়েছে। তার বাড়ীর সামনে পুলের পাশে দোকানের পেছনে মাদক বিক্রির একটি স্পট রয়েছে।সেখান হতে বিভিন্ন স্থানে দীর্ঘ দিন ধরে মাদক পাচার করে আসছে। সন্ধ্যার পর সংঘবদ্ধ দলটি উক্ত স্থানে মাদক সেবন করে মহাসড়ক সহ বিভিন্ন এলাকায় অপরাধ কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়।এদিকে নাজমুল হত্যাকান্ডের পর পরই কোরপাই এলাকায় গ্রেফতার আতংক বিরাজ করছে এবং মাদকসেবী উঠতি বয়সের যুবকেরা গা ঢাকা দিয়েছে।
গত ১৮/১০/১৪ ইং তারিখ নিহত নাজমুলের পিতা মো.আব্দুর রব বাদী হয়ে বুড়িচং থানায় কোরপাই এলাকার সেলিম মিয়ার ছেলে সুমনকে প্রধান আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। নাজমুল হত্যাকান্ডের ৩ দিন পার হয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত কোন ঘাতককে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। প্রধান আসামী মো.সুমনের বাড়ী থেকে ২০০গজ দক্ষিন পূর্বদিক হতে নাজমুলের গলাকাটা লাশ ও বাড়ীর ৫০ গজ দক্ষিন পাশের ডোবা হতে সিএনজি উদ্ধার করে দেবপুর ফাড়িঁ পুলিশ।
মামলার তদন্তকারী অফিসার বুড়িচং থানাধীন দেবপুর পুলিশ ফাড়িঁর এসআই নজরুল ইসলাম জানান-আসামীদের গ্রেফতারে সম্ভ্যাব্য স্থানে ষাড়াশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।
প্রসঙ্গত, গত ১৭ অক্টোবর শুক্রবার রাতে নাজমুলকে কোরপাই পিহর সীমান্তে সান্তামুড়া এলাকায় হত্যা করে তার চালিত সিএনজি ছিনতাই করে নিয়ে যায় ঘাতক সুমন ও তার সহযোগীরা।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply