ডেসার সাবেক চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মমিনুল হকের দাফন সম্পূর্ন

শামসুজ্জামান ডলার :–

ডেসার সাবেক চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী প্রকৌশলী আলহাজ্ব মোঃ মমিনুল হককে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় শেষ বিদায় জানায় মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিন উপজেলার সর্বস্তরের মানুষ।
তিনি মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, পাঁচআনী উচ্চ বিদ্যালয় ও সাড়ে পাঁচআনী হোসাইনীয়া ফাজিল মাদ্রাাসার গভর্ণিংবডির সভাপতি শিক্ষানুরাগী ।শুক্রবার সকাল ১০টায় নিজ প্রতিষ্ঠান পাঁচানী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দ্বিতীয় নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযার পূর্বে মরহুম প্রকৌশলী আলহাজ্ব মোঃ মমিনুল হকের জীবনী তুলে ধরে স্মৃতিচারণ করেন- মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ মঞ্জু। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, মমিনুল হক সাহেব ছিলেন বৃহত্তর মতলববাসীর জন্য রতœ। ডেসার চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময়ে তিনি মতলবের অসংখ্য মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। মতলবের মানুষের প্রতি তাঁর ভালবাসার কারনে তিনি শিক্ষা বিস্তারের ব্যপক কাজ করেছেন। গরীবের সন্তানদের শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে তিনি আমরন কাজ করেগেছেন। কাজেই তাঁর চলে যাওয়া মতলববাসীর জন্য ব্যপক ক্ষতি। মতলববাসীর এই ক্ষতি কখনো পূরন হবার নয়।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মফিজুল ইসলাম, অবসরপ্রাপ্ত যুগ্ম সচিব আনিছুর রহমান, ডা. প্রফেসর গোলাম রসূল, গজরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জি. আবুল কালাম, বাংলাদেশ চার্টার এনকান্টস এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, মরহুমের ভাগিনা ইঞ্জিনিয়ার রফিকুল ইসলাম, মরহুমের ভাতিজা এসএম মহসিন, ফয়সাল, মরহুমের বড় ছেলে তামিম মমিন, ছোট ছেলে ডা. মাশফিক মমিন, ছেংগারচর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হোছাইন মোহাম্মদ ইয়াছিন, পাঁচানী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ কামরুজ্জামান, সাড়ে পাঁচানী হোসাইনীয়া ফাজিল মাদরাসার পীরজাদা প্রফেসর মাওলানা এনামুল হক।
স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন- মরহুমের ভাতিজা চাঁদপুর জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসানুল হক ফটিক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, এলজিইডির প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী (অব.) মফিজুল ইসলাম, চাঁদপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির মতলব উত্তর জোনাল অফিসের ডিজিএম আবুল কালাম, মতলব উত্তর উপজেলা ইউপি চেয়ারম্যান কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদের স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শামসুল হক চৌধুরী বাবুল, মতলব পৌরসভার সাবেক চেয়ারমান নুরুল ইসলাম নুরু, মতলব উত্তর উপজেলা সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আশরাফুল আলম, ছেংগারচর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মোঃ শাহজাহান মিয়া, চাঁদপুর হাসান আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ হোসেন, মতলবগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. কবির হোসেন, মুন্সিরহাট কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মালেক, নাউরী আহম্মদীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একেএম তাজুল ইসলাম, বাগানবাড়ি আইডিয়ের একাডেমির প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম জমাদার, দশানী মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনছুর আহমদ, ছেংগারচর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বোরহান উদ্দিন মোল্লাসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দ, সমাজহিতোষী ব্যক্তিবর্গ। এরপর মরহুমের কফিনে ফুলের তোড়া দিয়ে ছেংগারচর বিশ্ববিদ্যালয় ও পাঁচানী উচ্চ বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে মরহুমের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে পাঁচানী মাজার মসজিদ প্রাঙ্গনে সকাল ১১টায় তৃতীয় নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।
প্রকৌশলী মমিনুল হক বুধবার রাত বাংলাদেশ সময় সাড়ে ৭টায় সিঙ্গাপুরের মাউন্ড এলিজাবেথদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৬৬ বছর। তিনি মৃত্যুকালে স্ত্রী, ২ছেলে ও অসংখ্য আতœীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে যান। প্রকৌশলী মোঃ মমিনুল হক ২৩ সেপ্টেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মরদেহ আসে। রাতেই বনানী গ্রেন্ড আজাদ মসজিদে প্রথম নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল শুক্রবার সকালে আল-সাকিব মেডিকেল সার্ভিসের লাশবাহি হিমায়িত গাড়ি যোগে মরহুমের মরদেহ এলাকায় নিয়ে আসলে মতলব উত্তরের আকাশ-বাতাস শোকের ছায়া নেমে আসে।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply