বাংলালিংক টাওয়ার’র মালামাল চুরি : ১২ ব্যটারী ও মাইক্রোবাস সহ ৪ চোর দেবিদ্বারে আটক

এবিএম আতিকুর রহমান বাশার :–

বাংলালিংক টাওয়ার’র ব্যবহৃত ১২টি ব্যাটারীসহ একটি মাইক্রোবাস ও ৪ চোরকে আটক করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটায় ‘দেবিদ্বার-চান্দিনা সড়ক’র নবিয়াবাদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়’র সামনে রাত্রকালীন টহলরত দেবিদ্বার থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এ,এ,আই) জয়দ্রত চাকমা’র নেতৃত্বে একদল পুলিশ একটি সিলভার কালার’র ঢাকা-মেট্রো- চ-১৪-২৫০৭ নং’র মাইক্রো বাস গতিরোধ করে তল্লাসী চালায়। এসময় গাড়ির ভেতরে মোবাইল টাওয়ার’র ১২টি ব্যাটারী, ব্যাটারী খোলার কাজে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতির একটি ব্যাগ দেখতে পেয়ে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার চানপুর গ্রামের মৃতঃ আলী আসরাফ’র পুত্র মাইক্রো চালক মোঃ আলম(৩০), একই গ্রামের আব্দুর রশীদ’র পুত্র মোঃ রকিবুল হাসান(২৪), একই উপজেলার সালমানপুর গ্রামের মোঃ বজলুর রহমান’র পুত্র মোঃ মোহন হাসিব(২৮) এবং চাপাইনবাবগঞ্জ জেলার পলাশ উপজেলার গোদাগাড়ী গ্রামের মোঃ নুরুল ইসলাম’র ছেলে মোঃ মন্ছুর আলী(২৬)নামক ৪ ব্যাক্তিসহ মাইক্রোবাসটিকে আটক করে।
দেবিদ্বার থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এ,এ,আই) জয়দ্রত চাকমা জানান, আটককৃতরা মুরাদনগর উপজেলার যাত্রাপুরে অবস্থিত তাদের নিজস্ব বাংলালিংক টাওয়ার’র ব্যাটারী উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মেরামতের জন্য নিয়ে যাচ্ছেন বলে জানায়। এসময় আটককৃতরা আমাকে একটি ফোন ধরিয়ে দিয়ে বলেন, তাদের বাংলালিংক কোম্পানীর উর্ধ¦তন কর্মকর্তা কথা বলবেন। ফোনে উর্ধতন কর্মকর্তা জানান, এগুলো তাদের নিজস্ব কোম্পানীর ব্যাটারী এবং যারা নিয়ে আসছেন তারা তাদের কোম্পানীর কর্মকর্তা/ কর্মচারী কোন সমস্যা নেই ছেড়ে দিন। পরবর্তীতে দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান’র সাথে যোগাযোগ করলে তিনি তাদের আটকের নির্দেশ দিলে তাদের থানায় নিয়ে আসি।
দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) মোঃ জাকির হোসেন সিকদার বলেন, ওই ঘটনায় দেবিদ্বার থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করে (ডায়েরী নং- ৩৪৩, তারিখ- ০৮/০৯/২০১৪ইং) মঙ্গলবার দুপুরে আটকৃতদের কুমিল্লা কোর্ট হাজতে চালান করেছি।
দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটায় মুরাদনগর উপজেলার যাত্রাপুর বাংলালিংক টাওয়ার থেকে ব্যাটারী চুরির বিষয়ে বাংলালিংক হেড অফিস থেকে ফোনে জানানো হয়। তাদের হেড অফিসের সিগ্নাল টাওয়ারে চুরির ঘটনাটি জানতে পেরেছেন। মুরাদনগর থানার ওসির মোবাইল বন্ধ থাকার কারনে যোগাযোগ না করতে পেরে দেবিদ্বার থানার সহযোগীতা কামনা করেন। ওই মূহুর্তে চুরি হওয়া মালামাল দেবিদ্বার-মুরাদনগর এলাকায় আছে বলেও জানান। আমার থানার বিভিন্ন এলাকায় দায়িত্ব পালনরত টহল পুলিশকে অবহিত করার পরপরই আটকের সংবাদ পাই।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply