নাঙ্গলকোটে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় নেই!

আজিম উল্যাহ হানিফ:–

বৃহত্তর কুমিল্লার ৩২ টি উপজেলার মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপজেলার নাম হচ্ছে নাঙ্গলকোট। আর সেই নাঙ্গলকোটে নেই মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সরকারি কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ফলে উচ্চ শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এখানকার হাজার হাজার গরীব মেধাবী শিক্ষার্থী। চৌদ্দগ্রাম ও লাকসামকে ভাগ করে জিয়াউর রহমানের আমলে চৌদ্দগ্রামের ১৯৭৯ সালে দ্বিতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হওয়া এমপি জয়নাল আবেদীন এর অন্যতম শ্রমে ২৪৭ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের নাঙ্গলকোট উপজেলাটি ১১টি ইউনিয়ন নিয়ে ১৯৮১ সালে উপজেলাটি গঠিত হয়। বর্তমানে ১২ টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা রয়েছে নাঙ্গলকোট উপজেলায়। অন্যদিকে বর্তমানে প্রায় ৫ লক্ষ জনসংখ্যা অধ্যুষিত এ উপজেলায় রয়েছে ১টি ডিগ্রী কলেজ, ভোলাইন বাজার স্কুল এন্ড কলেজ, হাসানপুর আবদুল গফুর ভুইয়া কলেজ, নাঙ্গলকোট মডেল মহিলা কলেজ,নাঙ্গলকোট কারিগরি কলেজ,সুহৃদ কারিগরী কলেজ,হেসাখাল স্কুল এন্ড কলেজ,মন্তলী স্কুল এন্ড কলেজ,বাঙ্গড্ডা বঙ্গবন্ধু কারিগরী কলেজ,বাদশা মিয়া কলেজ,চলন কলেজসহ ১৩টি কলেজ, ৪টি স্কুল এন্ড কলেজ এবং ৬১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়। এ উপজেলায় এতগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকলেও স্বাধীনতার পর থেকে এখনো পর্যন্ত কোন সরকার মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সরকারিকরণ করেনি। স্বাধীনতার পর অনেক জন প্রতিনিধি নাঙ্গলকোট হাছান মেমোরিয়াল ডিগ্রী কলেজকে সরকারি কলেজে রুপান্তরিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু দুঃখের বিষয়, কোন জনপ্রতিনিধি এখনো পর্যন্ত তাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে পারেনি। ফলে সাধারন জনগনের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম হতাশা।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply