জোয়ারে পানিতে মুক্ত হলো দুই জাহাজ

চাঁদপুর প্রতিনিধি :–

প্রায় ৪২ ঘণ্টা পর মুক্ত হলো হাইমচরে মেঘনা নদীর ডুবোচরে আটকে পড়া এমভি ছাত্তার খান-১ লঞ্চটি। রোববার বিকাল পৌনে পাঁচটার দিকে জোয়ারের পানিতে লঞ্চটি ভেসে উঠেছে। এর আগে জোয়ারের পানি বাড়তে থাকায় দুপুর ১২টার দিকে মুক্ত হয় এমভি ছাত্তারকে উদ্ধার করতে গিয়ে আটকে পড়া জাহাজ ‘অগ্রবাহক’।

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার আমির জাফর নৌযান দুটি মুক্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, এমভি ছাত্তার লঞ্চটি চাঁদপুর নৌ-পুলিশের তত্ত্বাবধানে চাঁদপুর লঞ্চঘাটে এনে রেখেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

এদিকে চাঁদপুর নৌ-পুলিশের ইনচার্জ জাহিদুল ইসলাম জানান, এমভি ছাত্তার লঞ্চটি ও লঞ্চের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পুলিশের নজরদারিতে রয়েছেন। এখনো কোনো মামলা হয়নি।

তবে অতিরিক্ত যাত্রী বহন, কর্তব্যে অবহেলাসহ এ ঘটনার জন্য দায়ী লঞ্চের সারেং, মাস্টার ও সুকানির বিরুদ্ধে একটি মামলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে বিআইডব্লিউটিএ সূত্রে জানা গেছে।

গত শুক্রবার রাত ১১টার দিকে প্রায় ৮০০ যাত্রী নিয়ে ডুবোচরে আটকে যায় এমভি ছাত্তার। স্থানীয় পুলিশের চেষ্টায় প্রায় ১২ ঘণ্টা পর ওই লঞ্চের যাত্রীদের উদ্ধার করা হয়। আটকে থাকা ছাত্তারকে উদ্ধার করার জন্য শনিবার বিকালে অগ্রবাহক নামের একটি জাহাজ পাঠানো হয়। সেটিও ডুবোচরে আটকা পড়ে। আজ জোয়ারের পানি বাড়ায় নৌযান দুটি মুক্ত হয়।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply