নবীনগরে সন্ত্রাসীর গুলিতে নিহত হওয়া সুমন হত্যা মামলার আসামী ৪ মাস পর গ্রেপ্তার

সাধন সাহা জয়: নবীনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি :–

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শীর্ষ সন্ত্রাসী ছোটন ও আলমগীর গুলিতে নিহত হওয়া সুমন হত্যা মামলার অন্যতম আসামী পৌর এলাকার আলমনগর গ্রামের ছায়েদুর মিয়ার ছেলে আলমগীর মিয়া (২০) কে শনিবার রাতে আলমনগর থেকে ৪ মাস পর গ্রেফতার করে পুলিশ। রবিবার দুপুরে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করে। গত ১০মে সুমনের পিতা বাদী হয়ে থানায় মামলা করে।

উল্লেখ্য, চাঁদা না দেওয়ার করণে পশ্চিমপাড়ার মোসলেম মিয়ার ছেলে সুমন (২৫) ও তাহের মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন (৩৫) গত ২মে বাজার থেকে ব্যাবসা শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে সন্ত্রাসী ছোটন বাহিনীর নেতৃত্বে তাদের উপর হামলা করে। তাদের গুলিতে সুমন গুলিবিদ্ধ ও জাকিরকে দা দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। আশংকাজনক আবস্থায় কুমিল্লা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

গুলিবৃদ্ধ সুমনের পিতা মোসলেম মিয়া বলেন, চাদা না দেওয়ার কারনে ছোটন বাহিনী আমার ছেলেকে গুলি করে। আমার মত আর কারো সন্তানকে যেন হারাতে না হয়। আমি এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

এ ব্যাপারে নবীনগর থানার ওসি রূপক কুমার সাহা বলেন, সুমন হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আলমগীরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের অভিযান চলছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply