হামাস কমান্ডারের স্ত্রী-শিশুকন্যাসহ নিহত ১১

ঢাকা :–

ফিলিস্তিন-শাসিত গাজায় অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি ভেস্তে গেছে। সেখানে নতুন করে বিমান হামলা শুরু করেছে ইসরাইল। এতে হামাসের সশস্ত্র শাখার প্রধানের স্ত্রী ও শিশুকন্যাসহ অন্তত ১১ জন নিহত হয়েছে।

প্রায় এক সপ্তাহ ধরে অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি চলার পর গতকাল মঙ্গল ও আজ বুধবার গাজায় এই হামলা চালায় ইসরাইল। যুদ্ধবিরতি ভঙ্গের জন্য হামাস ও ইসরাইল পরস্পরকে দায়ী করেছে।

দুই দফায় তিন ও পাঁচ দিনের পর গাজায় তৃতীয় দফায় ২৪ ঘণ্টার যুদ্ধবিরতির মেয়াদ ছিল গতকাল স্থানীয় সময় মধ্যরাত পর্যন্ত। ওই মেয়াদ শেষ হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগেই হামলার মধ্য দিয়ে যুদ্ধবিরতি ভেস্তে যায়।

পরবর্তী যুদ্ধবিরতির বিষয়ে কোনো ধরনের সমঝোতা ছাড়াই মিসরের রাজধানী কায়রোতে অনুষ্ঠিত আলোচনাও ভেঙে গেছে।

মঙ্গলবার রাতে গাজা সিটির একটি লক্ষ্যবস্তুতে চালানো ইসরাইলি হামলায় তিনজন নিহত হয়েছে। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে হামাসের সশস্ত্র শাখা কাশেম ব্রিগেডসের প্রধান মোহাম্মেদ দায়িফের স্ত্রী ও শিশুকন্যা রয়েছে। কায়রোতে হামাসের নির্বাসিত উপনেতা মুসা আবু মারজুক এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহত আরেকজনের পরিচরের ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। হামলা থেকে দায়িফ রক্ষা পেয়েছেন কি না, তা স্পষ্ট নয়। এর আগে তিনি একাধিক হামলা থেকে প্রাণে রক্ষা পেলেও গুরুতরভাবে আহত হয়েছেন।

বুধবার সকালে গাজায় চালানো ইসরাইলি হামলায় আটজন নিহত হয়েছে। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য বলে স্থানীয় চিকিৎসা কর্মকর্তারা জানান।

যুদ্ধবিরতি ভেস্তে যাওয়ার পর গাজায় নতুন করে ইসরাইলি হামলায় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে।

ইসরাইলের দাবি, গতকাল গাজা থেকে ৫০টি রকেট ছুড়েছে হামাস। আজ ছোড়া হয়েছে আরও ২০টি। এতে কোনো ইসরাইলি হতাহত হয়নি।

হামাসের সশস্ত্র শাখা কাশেম ব্রিগেডসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ইসরাইল দোজখের দরজা খুলেছে। তাদের চড়া মূল্য দিতে হবে। গাজার কর্মকর্তারা বলছেন, গত ৮ জুলাই শুরু হওয়া ইসরাইলি হামলায় দুই হাজার ২৮ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে সহস্রাধিক। নারী-শিশুসহ হতাহত ব্যক্তিদের অধিকাংশই বেসামরিক মানুষ। সূত্র: বিবিসি

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply