দেবিদ্বারে গৃহবধূর হত্যার রহস্য পায়নি পুলিশ

দেবিদ্বার প্রতিনিধি:–

কুমিল্লার দেবিদ্বারে কুড়াখাল গ্রামের মোঃ সহিদুল ইসলাম’র স্ত্রী ৫ সন্তানের জননী আলেয়া বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধূর গলিত ও বিকৃত লাশ ৩ দিন পূর্বে গত বুধবার রাতে কুড়াখাল গ্রামের সরকার বাড়ীর উত্তর পাশে একটি কার্লবার্ডের নিচে খাল থেকে উদ্ধার করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ।
মামলা সুত্র ও স্থানীয়রা জানান ওই দিন রাতে কাচিসাইর গ্রামের তার বড় বোন দেলোয়ারা বেগম এর বাড়িতে সেহেরী খাওয়ার পর ফজরের নামাজ পড়ে সে একা বের হওয়ার পর নিখোঁজ হয়। বুধবার রাতে পঁচা গন্ধ পেয়ে স্থানীয়রা এবং এক সিএনজি চালকের টর্চ লাইটের আলোতে ব্রীজের নিচে খালের পানিতে ওই গৃহবধূর লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ দু’পা ছেলোয়ার দিয়ে বাঁধা অবস্থায় আলেয়া লাশ উদ্বার করেন। তখন তার পরনে মেক্সি এবং বোরকা পরিহীত ছিল।
ওই ঘটনায় নিহতার ভাই বাবুল বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী দিয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন মামলা নং-২২,২৪.০৭.১৪ইং। মামলার পরও হত্যার রহস্য
পায়নি পুলিশ।

নিহতের স্বামী মোঃ সহিদুল ইসলাম বলেন এ বিষয়ে সন্দেহবাজন দুই ব্যাক্তিকে শুক্রবার বিকালে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য পুলিশ সিএনজিতে তোলে নেয়। তখন ওই দুই ব্যাক্তি চেয়ারম্যাকে ফোন দিলে পুলিশের সাথে কথা বলে তারা সবাই দেবিদ্বার না গিয়ে মোহাম্মদপুর গ্রামে চেয়ারম্যানের কাছে চলে যায়। স্থানীয় চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম তাদের পুলিশের কাছ থেকে রেখে দেয়।
ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন পুলিশ আমার কাছে আগে এসেছে তার পর ওই দুই ব্যাক্তি এসেছিল আজ(শনিবার)তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।
দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) শ্যামল চক্রবর্ত্তী জানান আমার সাথে চেয়ারম্যনের কথা হয়েছে দুই ব্যাক্তিতে জিজ্ঞাবাদ করা হবে তাদের থানায় আসতে বলেছি।
অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন হত্যার রহস্য উদঘটনের সর্বাত্বক চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

Check Also

দাউদকান্দিতে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

হোসাইন মোহাম্মদ দিদার :কুমিল্লার দাউদকান্দিতে শান্তা বেগম (২৪) নামে এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। ...

Leave a Reply