নাঙ্গলকোটে পরিবার পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারের বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ

মোঃ আলাউদ্দিন, নাঙ্গলকোট :–

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার মৌকরা ইউপির গোমকোট গ্রামের পরিবার পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তার বশির উল্লাহ খন্দকারের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ডাঃ বশির উল্লাহ খন্দকার দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে এ ক্লিনিকে কর্মরত আছেন। সে কুমিল্লা থেকে ১৫ দিন পর ১দিন এসে অফিস করে। আবার কোনো কোনো মাসে একদিনও না এসে সরকারি বেতন তুলছেন। কেয়ারটেকার আবদুর রশিদের সহযোগিতায় দৈনিক উপস্থিতি স্বাক্ষর বইতে ১৫ দিনের স্বাক্ষর একদিনে করে থাকেন। বিনা মূল্যের ঔষুধ হলেও ডাঃ বশির কেয়ারটেকার আবদুর রশিদের মাধ্যমে প্রত্যেক রোগীর কাছ থেকে ১০ থেকে ১৫ টাকা হারে আদায় করে। কারো কারো কাছ থেকে আরও বেশি টাকাও আদায় করা হয়। কেউ টাকা দিতে অস্বীকার করলে ঔষুধ নেই বলে তাকে তাড়িয়ে দেয়া হয়। পরে সেই ঔষুধ কেয়ারটেকার আবদুর রশিদ অবৈধভাবে বিভিন্ন ফার্মেসীতে সরবরাহ করে থাকে।
এ ব্যাপারে ডাঃ বশিরের সাথে মূঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply