চান্দিনায় এক রাতে বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সামিট পাওয়ারসহ ৪ স্থানে দুর্ধর্ষ ডাকাতি

মাসুমুর রহমান মাসুদ,চান্দিনা (কুমিল্লা):–
চান্দিনায় বেড়েই চলছে ডাকাতি। সোমবার (২ জুন) রাতে ৪টি স্থানে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাত দলের হাত থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সামিট পাওয়ার লি. এর চান্দিনা পাওয়ার প্ল্যান্টও রক্ষা পায়নি। এছাড়া ওই রাতে মাধাইয়া-নবাবপুর সড়কের কাশিমপুরে, কুটুম্বপুর-পরচঙ্গা সড়কের মুরাদপুর ব্রীজে এবং মাধাইয়ার গোবিন্দপুর গ্রামের এক হিন্দু বাড়িতে ডাকাতি হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, সোমবার রাত সাড়ে ১২টায় মাধাইয়া ইউনিয়নের কুটুম্বপুরের মুরাদপুর ব্রীজে গাছের গুড়ি ফেলে যাত্রীবাহী ৪টি সিএনজি অটোরিক্সায় ডাকাতি করে ডাকাতদল।
একই রাত ২টায় একই ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের এক হিন্দু বাড়িতে ডাকাতি করে ডাকাত দল। মুখোশধারী ডাকাতদল সুরেশ মন্ডলের ছেলে নন্দন মন্ডল ও সচীন্দ্র মন্ডলের ঘরে প্রবেশ করে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। এসময় ডাকাতের ছুড়িকাঘাতে সচীন্দ্র মন্ডল আহত হয়।
রাত ৩টায় মাধাইয়া-নবাবপুর সড়কের কাশিমপুর ফকির বাড়ির সামনে গাছের গুড়ি ফেলে ৭টি সিএনজি অটোরিক্সায় ডাকাতি চালায়।
একই সময়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন কুটুম্বপুরের সামিট পাওয়ারে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে বলে জানাযায়।
পুলিশ সূত্রে জানাযায়, সামিট পাওয়ার লি: এর কর্তৃপক্ষের অভিযোগে বলা হয়েছে রাত ৩টায় ডাকাতদল ভিতরে প্রবেশ করে নৈশ প্রহরীদের বেঁধে নগদ টাকা ও মূল্যবান যন্ত্রাংশ নিয়ে যায়। মঙ্গলবার বিকেলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম ও চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তবে সামিট পাওয়ার লি: এর কর্তৃপক্ষ সাংবাদিকদের কোন তথ্য দিতে রাজি হয়নি।
এব্যাপারে চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) গোলাম মোর্সেদ জানান, সামিট পাওয়ার লি: এর ঘটনাটি জানার পর আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করব। এছাড়া ওই প্রতিষ্ঠানের কারো সংশ্লিষ্টতা আছে কি-না তাও খতিয়ে দেখা হবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply