কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে ছেলেরা এগিয়ে, পিছিয়ে মেয়েরা

কুমিল্লা প্রতিনিধি :–
কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অধীন ৬ জেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ফলাফলে ছেলেরা এগিয়ে এবং মেয়েরা পিছিয়ে রয়েছে। গত বছরের তুলনায় বোর্ডে শতভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যাও কমেছে। এছাড়া গত বছরের চেয়ে এ বছর বোর্ডে পাশের হার কমলেও প্রায় দেড়গুণ বেড়েছে জিপিএ-৫।
বোর্ড সূত্রে জানা যায়, প্রকাশিত ফলাফলে এ বছর বোর্ডের অধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক বিভাগের মোট ১ লাখ ৪৫ হাজার ১৩ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ লাখ ৪৪ হাজার ৪২১ জন। গড় ফলাফলে পাশের হারে মেয়েরা পিছিয়ে রয়েছে। এক্ষেত্রে বিজ্ঞান বিভাগে ছেলেদের পাশের হার ৯৫.২৯ ও মেয়েদের ৯৪.০৫, মানবিক বিভাগে ছেলেদের পাশের হার ৮২.৯৭ ও মেয়েদের ৮২.০১ এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ছেলেদের ৯২.২৫ ও মেয়েদের ৯০.৫৬। জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতেও মেয়েরা পিছিয়ে রয়েছে। এ বছর ১০ হাজার ৯৪৫ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ অর্জন করেছে। এরমধ্যে ছেলে ৫ হাজার ৬৮৬ ও মেয়ে ৫ হাজার ২৫৯ জন। অপরদিকে এ বোর্ডে শতভাগ উত্তীর্ণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যাও গত বছরের তুলনায় কমেছে। গত বছর শতভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ছিল ২৭৫টি, যা এ বছর কমে হয়েছে ১৬৭টি।

বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার্থী কম:  
এ বছর ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক বিভাগের তুলনায় বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার্থী ছিল কম। এ বিভাগে ২৯ হাজার ১৫৩ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। এদের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ২৭ হাজার ৬২৩ জন। অপরদিকে মানবিক বিভাগে ৩৪ হাজার ২০৮ জন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৮১ হাজার ৬০ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে যথাক্রমে ২৮ হাজার ১২০ ও ৭৪ হাজার ১২৫ জন পাশ করেছে।
ফলাফল প্রসঙ্গে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কায়সার আহমেদ জানান, এ ফলাফলের কৃতিত্ব শুধুমাত্র ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ এবং অভিভাবকদের। আগামীতেও বোর্ডের সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্টদের উৎসাহ এবং নির্দেশনা দেয়া হবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply