চান্দিনায় জিপিএ-৫ পেয়েছে ১শ ৮৬জন; আবেদানূর কুমিল্লা বোর্ডে নবম

মাসুমুর রহমান মাসুদ,চান্দিনা (কুমিল্লা):-
কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে চান্দিনা উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১শত ৮৬ জন ছাত্র-ছাত্রী জিপিএ-৫ পেয়েছে। এদিকে চান্দিনা উপজেলার গল্লাই আবেদানূর বালক উচ্চ বিদ্যালয় কুমিল্লা বোর্ডে নবম স্থানে ররেছে। ওই বিদ্যালয় থেকে ৫৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪০জন জিপিএ-৫ সহ শতভাগ পাশ করে উপজেলা পর্যায়ে শীর্ষ স্থানে রয়েছে।
অপরদিকে উপজেলার আবেদানূর বালক উচ্চ বিদ্যালয়, আবেদানূর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বরকইট উদয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, চিলোড়া পূর্ব অম্বরপুর কারিগরি উচ্চ বিদ্যালয়, পিপুইয়া উচ্চ বিদ্যালয়, ওরাইন উচ্চ বিদ্যালয়সহ ছয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শতভাগ পাশের গৌরব অর্জন করেছে।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার কানিজ আফরোজ জানান, চান্দিনার ৩১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২হাজার ৩৮৩জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৮৬.৪৯% হারে পাশ করে ২ হাজার ৬১জন। এদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৮৬জন।
চান্দিনা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ ৩৭জন, চান্দিনা ডা. ফিরোজা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ২১জন, বড়গোবিন্দপুর আলী মিঞা ভূইয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৭ জন, আবেদানূল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৫জন, মহিচাইল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৫ জন, কুটুম্বপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৪ জন, মহিচাইল জোবেদা মমতাজ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১২ জন, বরকইট উদয়ন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৫ জন, মাধাইয়া বাজার ছাদিম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৫জন, হারং উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২ জন, ভোমরকান্দি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১জন, দোল্লাই নাবাবপুর বালিকা বিদ্যালয় থেকে ১জন, দোল্লাই নবাবপুর আহসান উল্লাহ্ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১জন জিপিএ-৫ পেয়েছে।
উপজেলা পর্যায়ে কৈলাই তুলপাই উচ্চ বিদ্যালয়ের ফলাফল বিপর্যয় হয়েছে। এই বিদ্যালয় থেকে ৬৫ জন পরীক্ষা দিয়ে ২৬ জন পাশ করেছে। বিদ্যালয়টির পাশের হার ৪০ শতাংশ।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply