দেবিদ্বারে এলাকাবাসীর সহায়তায় প্রতিষ্ঠা হচ্ছে গঙ্গামন্ডল মডেল কলেজ ও স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা নির্মাণ

স্টাফ রিপোর্টার :–
কুমিল্লার দেবিদ্বারে এলাকাবাসীর স্বত:স্ফূর্ত সহায়তায় প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে ‘গঙ্গামন্ডল মডেল কলেজ’ নামে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং ওই কলেজে শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য স্বেচ্ছাশ্রমে নির্মাণ করা হচ্ছে রাস্তা। উপজেলার চাঁন্দপুর গ্রামে কলেজ প্রতিষ্ঠায় এলাকাবাসীর এ ব্যতিক্রমী উদ্যোগ আশপাশের এলাকার শিক্ষানুরাগীসহ সকল মহলে বেশ সাড়া জাগিয়েছে এবং এ উদ্যোগের সাথে একাত্ম হয়ে যে যার সাধ্যমত সহায়তার হাত বাড়িয়েছেন।
জানা যায়, দেবিদ্বার উপজেলার ফতেহাবাদ ইউনিয়নের ১৮টি গ্রাম ও আশপাশের আরও ১০/১২টি গ্রামের ছেলেমেয়েদের উচ্চ শিক্ষার জন্য কোন কলেজ নেই। এতে স্কুলের গন্ডি পেড়িয়ে কলেজগামী শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়। বিষয়টি ওই এলাকার শিল্পপতি, ব্যবসায়ী, চাকুরীজীবী, কৃষক ও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের নজরে আসে এবং শিল্পপতি হাজী আবুল কালাম আজাদ, ব্যবসায়ী মো. শাহজাহান, আবু হেনা মোস্তফা কামাল মৃধা, ইউপি চেয়ারম্যান আবদুস সালাম, মেম্বার শহিদুল ইসলাম আখন্দ, মো. শাহ আলম ভূঁইয়া, মো. জসিম উদ্দিন, এস.এম রাসেল রনিকসহ শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিরা কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। তাঁদের এ উদ্যোগে সাড়া দিয়ে এগিয়ে আসেন এলাকার লোকজন। হাজী আবুল কালাম আজাদ জানান, ইউনিয়নের মধ্যবর্তী স্থানে চাঁন্দপুর গ্রামে ‘গঙ্গামন্ডল মডেল কলেজ’ নামে কলেজটি প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে এবং স্থানীয় কয়েকজন সাধারণ কৃষক বিনামূল্যে মূল্যবান ৬৮ শতক জমি দিয়েছেন। আরও ৪২ শতক জমি ক্রয় করে ১ একর ১০ শতক জমি কলেজের নামে দেয়া হয়েছে। কলেজের জমি ক্রয়ে এলাকার লোকজন যে যার সাধ্যমত আর্থিকসহ বিভিন্নভাবে সহায়তা করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, ওই কলেজে শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য গত কয়েকদিন ধরে এলাকার বিভিন্ন বয়সের কৃষক-শ্রমিক ও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোকজন স্বত:স্ফূর্তভাবে স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ করছেন। দুপুরে তাদের মাঝে খিচুড়ি বিতরণ করা হয়। এসময় ওই এলাকাবাসীর মাঝে এক অভূতপূর্ব উৎসবের আমেজ পরিলক্ষিত হয়। উদ্যোক্তারা জানান, ‘এ যেন এক অম্লাণ আনন্দ আয়োজন, আর গ্রামেই মিলে এ আনন্দের শান্তির পরশ।’ কলেজটি চালু হলে ফতেহাবাদ ইউনিয়নসহ আশপাশের অর্ধলক্ষাধিক জনঅধ্যুষিত এলাকার কলেজগামী শিক্ষার্থীরা তাদের লেখাপড়ার সুযোগ পাবে। এলাকাবাসীর এ উদ্যোগ এলাকায় শিক্ষাক্ষেত্রে আলোকবর্তিকা হয়ে থাকবে বলে মনে করেন উদ্যোক্তা ও শিক্ষানুরাগী মহল।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply