মুক্তিযোদ্ধা ভাতা কর্তনের অভিযোগে নাঙ্গলকোটের সেই কমান্ডার জেল হাজতে

নিজস্ব প্রতিনিধি:–

মঙ্গলবার কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে মুক্তিযোদ্ধার ভাতার টাকা কর্তনের অভিযোগে উপজেলা কমান্ডারকে আটক করে আদালতে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ। ওইদিন দুপুরে কুমিল্লার চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আ.স.ম শহীদুল্লাহ কায়সার তাকে জেল হাজতে প্রেরনের আদেশ দেন এবং তার বিষয়ে তদন্ত করে ৮মের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ প্রদান করেন।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ইছহাক মিয়াসহ কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা পরিকল্পনা মন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামাল (লোটাস কামাল) কে সংবর্ধনা দিতে মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতার টাকা কর্তনের অভিযোগ পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ার পর ওই কমান্ডারকে  আটক করে থানা পুলিশ।
উল্লেখ্য যে, মুক্তিযোদ্ধাদের বিগত ৬মাসের ভাতা বাবত ১৮হাজার টাকা উত্তোলনকালে প্রতি মুক্তিযোদ্ধা থেকে সাতশ টাকা হারে কর্তন করে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ইছহাক মিয়াসহ কয়েকজন নেতৃবৃন্দ। ওইদিন সোনালী ব্যাংক নাঙ্গলকোট শাখায় ৩৯৮জন মুক্তিযোদ্ধার ভাতার টাকা উত্তোলন করেন। মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার প্রতি জন থেকে সাতশ টাকা হারে ২লক্ষ ৭৮হাজার ৬‘শ টাকা কর্তন করেন।
এ বিষয়ে নাঙ্গলকোট থানা অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জানান, মুক্তিযোদ্ধাদের থেকে চাঁদা নেয়ার বিষয়টি বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হলে তাকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত তার বিষয়ে তদন্ত করে ৮মে এর মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
এ ঘটনার সংবাদ পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ায় ওই এলাকায় পত্রিকার কপি তড়িৎ গতিতে শেষ হয়ে যাওয়ায় ফটো বিক্রির হিড়িক পড়ে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply