নৌবাহিনী প্রধানের সাথে মায়ানমার নৌবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ এর সৌজন্য সাক্ষাত

ঢাকা :–

বাংলাদেশে সফররত মায়ানমার নৌবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ এডমিরাল যেয়া চও থিন থুরা থেট শোয়ে (Admiral ZEYA KYAW HTIN THURA THET SWE) আজ সোমবার (০৫-০৫-২০১৪) বনানীস্থ নৌ সদর দপ্তরে নৌবাহিনী প্রধান ভাইস এডমিরাল এম ফরিদ হাবিব এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন। এর আগে কমান্ডার-ইন-চিফ নৌ সদরে এসে পৌঁছালে নৌবাহিনীর একটি সুসজ্জিত দল তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করে। তিনি গার্ড পরিদর্শন করেন এবং অভিবাদন গ্রহণ করেন।

সাক্ষাতকালে তিনি নৌ প্রধানের সাথে কিছু সময় অতিবাহিত করেন এবং পারস্পরিক কুশল বিনিময়সহ পেশাগত, পারস্পরিক সহযোগিতা ও সামুদ্রিক নিরাপত্তা বিষয়ে আলোচনা করেন। এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত মায়ানমারের সামরিক উপদেষ্টা এবং মায়ানমারে নিযুক্ত বাংলাদেশী সামরিক উপদেষ্টাসহ উভয় দেশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ সফরে তাঁর সফরসঙ্গী হিসেবে মায়ানমার নৌবাহিনীর তিন জন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা রয়েছেন।  পরে তিনি সেনা, বিমান বাহিনী প্রধান ও পিএসও এএফডি এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। বিকেলে তিনি ‘বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর’ পরিদর্শন করেন।

এর আগে দুপুরে মায়ানমার নৌবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ বাংলাদেশ সফরের উদ্দেশ্যে হযরত শাহ্জালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসে পৌঁছালে সহকারী নৌবাহিনী প্রধান (ম্যাটেরিয়াল) রিয়ার এডমিরাল রিয়াজউদ্দীন আহ্মেদ তাঁকে স্বাগত জানান। পরে তিনি শিখা অনির্বাণে পুস্পস্তবক অর্পণ করে একাত্তরের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে শাহাদাৎ বরণকারী সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। সন্ধ্যায় তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন।

পাঁচ দিনব্যাপী বাংলাদেশ সফরকালে মায়ানমার নৌবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ মহামান্য রাষ্ট্রপতির সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করবেন। এছাড়া তিনি ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড এন্ড ষ্টাফ কলেজ, ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ ও এমআইএসটি’র কমান্ড্যান্টগণের সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে অংশ নিবেন। সফরের অংশ হিসেবে তিনি চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চলে অবস্থিত নৌবাহিনীর বিভিন্ন জাহাজ ও ঘাঁটি পরিদর্শন করবেন এবং আঞ্চলিক কমান্ডারগণের সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হবেন। পাশাপাশি তিনি বাংলাদেশ নৌ পরিবার কল্যাণ সংঘ পরিচালিত বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের জন্য প্রতিষ্ঠিত বিএন আশার আলো স্কুল ও পুনর্বাসন কেন্দ্র এবং বাংলাদেশ নেভাল একাডেমি পরিদর্শন করবেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সফর শেষে মায়ানমার নৌবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ আগামী ০৮ মে ২০১৪ তারিখে ঢাকা ত্যাগ করবেন বলে আশা করা যায়।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply