কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা, প্রতিবাদে ৭টি ঘরে আগুন

কুমিল্লা প্রতিনিধি :–
মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়াকে কেন্দ্র করে কুমিল্লায় জানু মিয়া (৪৫) নামে এক গরু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে নগরীর নলুয়াপাড়া প্রকাশ্যে নবগ্রাম বউবাজার এলাকায় এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ রকি (৩২) নামে একজনকে আটক করেছে। এদিকে, এ হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে স্থানীয় উত্তেজিত জনতা মঙ্গলবার গভীর রাতে ও বুধবার বেলা ১১টার দিকে ঘাতক রকির স্বজন ও প্রতিবেশীদের ৭টি ঘর ও একটি দোকানে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়।
স্থানীয় সূত্র ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজন জানান, নগরীর সুজানগর সংলগ্ন নলুয়াপাড়া প্রকাশ্যে নবগ্রাম এলাকায় শের আলীর পুত্র রকি দীর্ঘদিন যাবত স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করে মাদক বিক্রি আসছিল। তার এ মাদক ব্যবসায় বিভিন্ন সময় একই গ্রামের জানু মিয়ার পুত্র জামাল হোসেন বাঁধা দেয়। এতে রকি ক্ষিপ্ত হয়ে তার লোকজন নিয়ে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে জামাল হোসেনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। খবর পেয়ে জামালের পিতা গরু ব্যবসায়ী জানু মিয়া বাড়িতে আসলে সন্ত্রাসীরা তাকে কুপিয়ে আহত করে। এসময় সন্ত্রাসীরা বেশ কয়েকটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এলাকায় চরম আতংক সৃষ্টি করে। স্থানীয়রা ব্যবসায়ী জানু মিয়াকে উদ্ধার করে আশংকাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে জানু তিনি মারা যান। এসময় আরো কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় জানু মিয়ার পুত্র শাহ আলম বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ৫ জনের নামে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এদিকে রাত ১২টায় উত্তেজিত জনতা রকির বাড়িঘর ভাংচুর করে। পরে রকির মামা হানু মিয়া ও মামাতো বোন নাসরিনের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। আগুনে নাসরিনের বাড়িসংলগ্ন আরো ৪টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। অগ্নিকান্ডে নুরআলম, আশ্রব মিয়া, আলমগীর, পারভেজ ও মান্নান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এদিকে গতকাল বুধবার বেলা ১১টার দিকে রকির খালা পাখি বেগমের বাড়িও আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়া হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে ৭টি ঘরের নগদ অর্থসহ প্রায় ৫০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্তরা। ক্ষতিগ্রস্ত আশ্রব মিয়ার স্ত্রী রহিমা বেগম জানান, রাত ১২টার দিকে ৫০/৬০ জনের একটি দল রকির মামাতো বোন নাছিমার বাড়ি ও তার স্বামীর দোকানে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। মুহুর্তেই সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়। স্থানীয় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মহিউদ্দিন মাহমুদ জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply