মুক্তিযোদ্ধাদের ডাটাবেজ বিড়ম্বনা : সংশোধনের নির্ধারিত তারিখ প্রায় শেষ হলেও ওয়েব সাইটে কাজ করা যাচ্ছে না

মিজানুর রহমান সরকার,ব্রা‏হ্মণপাড়া(কুমিল্লা):–

দেশের প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাভূক্তির লক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রনালয়ের ওয়েব সাইটের মাধ্যমে www.molwa.gov.bd/eservices লিংকে অনলাইনে ডাটাবেজ সংশোধন এবং ডাটাবেজ থেকে বাদ পড়া মুক্তিযোদ্ধাদের অর্ন্তভূক্তি করণ কার্যক্রমটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ হলেও ওয়েব সাইটের নানা প্রতিবন্ধকতায় এটি এখন মুক্তিযোদ্ধাদের বিড়ম্বনার কারণ হয়ে দাড়িয়েছে বলে মন্তব্য করছে এলাকার সকল মুক্তিযোদ্ধারা। টেলিভিশন, পত্র পত্রিকা এবং ওয়েব সাইটে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী গত মার্চ ২০১৪ মাসেই এ কার্যক্রম সম্পন্ন হবার কথা থাকলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত ওয়েব লিংকটি ওই তারিখের বেশির ভাগ সময় ছিল অকার্যকর। ফলে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। উপজেলার কোন মুক্তিযোদ্ধা এ কাজটি সম্পন্ন করতে পারেনি। প্রতিবেদক সহ এলাকার কম্পিউটার বিশেষজ্ঞরা মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে বহুবার চেষ্টা করেও ওই লিংকে প্রবেশ করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে তারা। মার্চ মাসের মাঝামাঝি ওই লিংটি সাময়িক কার্যক্রম করতে দেখা গেলেও মুক্তিযোদ্ধা অনুসন্ধানে গিয়ে দেখা যায় বিগতদিনে যাদের তথ্য ওয়েব সাইটে প্রকাশিত হয়েছে, তাদের ৮০ শতাংশ লোকেরই তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। যাদের তথ্য পাওয়া যাচ্ছে, তাদের ভুল সংশোধন করা যাচ্ছেনা। তাছারা সফল ভাবে কার্য্য সম্পন্ন করা নতুন ডাটাবেজ আবেদনের সফল প্রতিবেদন কিংবা ক্রমিক নাম্বার প্রদর্শন না করায় প্রকৃত পক্ষে কাজটি সম্পন্ন হলকিনা তাও জানা যাচ্ছে না। এসব সমস্যার জন্য টেলিফোনের মাধ্যমে মন্ত্রনালয়ে যোগাযোগ করার পর সংশোধন করা গেলেও সেভ / প্রিন্ট কমান্ড বাটন না থাকায় প্রিন্ট নেয়া যাচ্ছে না। এ ব্যাপারে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রনালয়ের ৭১৪ নং কক্ষের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নিকট জানতে চাইলে তিনি বিষয়ের সত্যতা স্বীকার করে জানান মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ওয়েব সাইটে ঘাটাঘাটি করায় ডাটাবেজটি নষ্ট হয়ে গেছে। এ জন্য এপ্রিল মাস পর্যন্ত তারিখ বর্ধিত করা হয়েছে। এ সময়ে সব কিছু ঠিক হয়ে যাবে বলে আশ্বস্ত করলেও ৮ এপ্রিল ১৮ তারিখে প্রতিবেদন লিখা পর্যন্ত ওই লিংটির কার্য্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এ ব্যাপারে কুমিল্লার ব্রা‏হ্মণপাড়া উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সাত্তার মোল্লা, বীর বিক্রম আবদুল মান্নান, সৈয়দ মনিরুল হক, আবুল কাশেম সহ বিভিন্ন ইউনিয়ন কমান্ডার এবং কাজ করতে আসা বহু মুক্তিযোদ্ধাগন বলেন, আমরা দূর দুরান্ত থেকে অনেক কষ্ট করে ডাটাবেজ সংশোধন করতে এসে দেখি কার্যক্রমটি বন্ধ রয়েছে। এতে আমাদের অনেক ভোগান্তি হয়। এক দিকে বিভিন্ন মিডিয়াতে প্রচার করা হয়, সংশোধন কার্য্যক্রম চলছে। অন্যদিকে ওয়েব সাইটে কার্য্যক্রম বন্ধ করে রাখায় আমাদের বিড়ম্বনা বেড়ে যায় বহু গুন। এসব গুরুত্বপূর্ন কাজে অদক্ষ লোক দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের হয়রানী না করে, কার্য্যক্রমটিতে দক্ষ লোক নিয়োগের মাধ্যমে প্রকৃত সমস্যার সমাধান করেই মিডিয়াতে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা উচিৎ। আমাদের মনে হয় যারা মন্ত্রনালয়ে বসে এসব দায়িত্বহীন কাজ করে, তারা আমাদের দুক্ষ বুঝার চেষ্টাও করেনা।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply