কুবি শিক্ষকের ধৃষ্টতা : হিজাব পড়ায় ক্লাস থেকে বের করে দিলেন ছাত্রীকে !

কুবি প্রতিনিধি:–
হিজাব পড়ার কারণে ছাত্রীকে ক্লাস থেকে বের করে দেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাইদুল আলআমিন। গত ২৭ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৮ম ব্যাচের ১ম বর্ষের ১ম সেমিস্টার ক্লাসে এ ঘটনা ঘটে।
শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানা যায়,  গত ২৭ মার্চ নতুন ব্যাচের ১ম সেমিস্টারের বিজনেস ম্যাথমেটিকস কোর্সের ক্লাস নিতে যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাইদুল আলঅমিন। প্রথম ক্লাসেই তিনি হিজাব পড়া এক ছাত্রীকে নিয়ে কটুক্তি করেন। এবং এক পর্যায়ে ওই ছাত্রীকে ক্লাস থেকে বের করে দেন এবং হিজাব খুলে ক্লাসে আসতে বলেন। প্রায় আধা ঘন্টা পর হিজাব খুলে ক্লাসে গেলে তিনি প্রবেশের অনুমতি দেন। শিক্ষার্থীরা আরো জানায়, এ সময় শিক্ষক সাইদুল আলআমিন বোরকা পরিহিত অন্য মেয়েদের উদ্দেশ্য করে বলেন, খোলস ছেড়ে বের হতে হবে। বোরকা পড়ে স্মার্ট হওয়া যায় না। তিনি আরো বলেন যারা বোরকা পড়ে তারা আনকালচারড।
এদিকে প্রথম ক্লাসেই এমন ঘটনায় ভীত হয়ে পড়েন শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে তাদের মাঝে  তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।  জানা যায়, অভ্যন্তরিন কোর্সে শিক্ষকের হাতে নম্বর থাকায় কেউ এ বিষয়ে অভিযোগ করার সাহস পাচ্ছে না। এ ব্যাপারে শিক্ষার্থী এবং অভিভঅবকদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। এ বিষয়ে কয়েকজন অভিভাবকের সাথে কথা বললে তারা জানান, যেখানে বিধর্মীদের দেশে হিজাব নিয়ে মুসলিমরা আন্দোলন করে, সেখানে মুসলিম অধ্যুষিত বাংলাদেশে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের হিজাব বিরুধী এমন কর্মকান্ডে আমরা উদ্বিগ্ন। তারা আরো বলেন এটা এক ধরনের যৌন হয়রানী। এমন শিক্ষকের কাছে ছাত্রীরা নিরাপদ নয়। তারা অবিলম্বে উক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানান।
এ ব্যাপারে ভিসি প্রফেসর ড. আলি আশরারফের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি ব্যস্ত আছেন বলে জানান।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply