আজকের বোর্ড সভায় নির্ধারিত হবে মুশফিক-সাকিবের ভাগ্য

ঢাকা :–

বিশ্ব টি-টোয়েন্টি বাংলাদেশের পারফরমেন্সের হতাশার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সমালোচনাও আছে। এই পারফরমেন্স কাটাছেঁড়া করতে আজ এক জরুরি সভায় বসতে চলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা পর্ষদ।

বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস এ সভার আলোচ্য বিষয় জানাতে গিয়ে বলেছেন, ‘জরুরি সভায় তো আগাম কোনো আলোচ্যসূচি ঠিক করা থাকে না। তবে অবস্থা যা তাতে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের পারফরমেন্স নিয়েই আলোচনা হওয়ার কথা আছে।’

সে আলোচনা থেকে কঠোর কোনো সিদ্ধান্ত বেরিয়ে আসার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের কাছে হারের পরপরই টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে বসেছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। বসেছেন এই ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টির সময়ও। শেষবার কোচ শেন জার্গেনসেন ও অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমদের ডেকে বসার পর নাজমুল সংবাদমাধ্যমকে এমনও বলেছিলেন যে, এর পরও পারফরমেন্স আশানুরূপ না হলে বড় আকারের পরিবর্তন আনা হবে। অবশ্য এ জরুরি সভায় কোচ, অধিনায়ক কিংবা নির্বাচক কাউকেই তলব করা হচ্ছে না বলেও নিশ্চিত করেছেন জালাল। মুশফিকের নেতৃত্ব নিয়ে অবশ্যই আলোচনা হবে আজ। তবে তাকে বাদ দেয়ার সম্ভাবনা কম।

বাজে পারফরমেন্সের পর অতীতেও টিম ম্যানেজমেন্টকে বোর্ড সভায় ডেকে তাদের বক্তব্য জানতে চাওয়া হয়েছিল। এবারও তেমন কিছু হওয়ার আশঙ্কায় এমনকি নিজ দেশে ছুটি কাটাতে যাওয়াও পিছিয়ে দিতে রাজি ছিলেন জার্গেনসেন। যদিও সে রকম কিছু এবার হচ্ছে না নিশ্চিত হয়েই গত পরশু জার্গেনসেন নিজ দেশ অস্ট্রেলিয়ায় উড়ে গেছেন। দুই সপ্তাহের ছুটি শেষে তিনি ফেরার আগেই অবশ্য তার শিষ্যরা আবার ব্যাট-বল নিয়ে মাঠে নেমে পড়বেন। ও

য়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টির কারণে স্থগিত হওয়া ফার্স্ট ক্লাস আসর জাতীয় ক্রিকেট লিগে খেলবেন তারা। তবে এর আগে আজ তারা জরুরি বোর্ড সভার দিকেও তাকিয়ে থাকবেন নিশ্চিত। কারণ এখানে যে ক্রিকেটারদের আজ শূলে চড়ার সম্ভাবনাই প্রবল। আর পত্রিকায় দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে সাকিব আল হাসানও জরুরি বোর্ড সভার অন্যতম আলোচ্য হয়ে উঠছেন বলে জানিয়েছেন জালাল, ‘এটা নিয়ে তো অবশ্যই আলোচনা হবে। সাকিবের বিপক্ষে কোন শাস্তি হবে কিনা জানি না তবে ওর সেই সাক্ষাৎকার নিয়ে ক্ষুব্ধ সবাই।’

১৯৯৩ সালের ঢাকা সাফ গেমসের ফুটবলে ব্যর্থতার পর বেরিয়ে এসেছিল যে ওই আসরের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় ফুটবলারদের এক মণ মধু খাওয়ানো হয়েছিল!

আশার কথা, ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টির ব্যর্থতায় মুশফিকুর রহিমদের নিয়ে এমন কিছু হচ্ছে না। তবে পারফরমেন্স খরচের সমানুপাতিক না হওয়ার একটা হিসাব ঠিক পাওয়া যাচ্ছে। গত পরশু সংসদ অধিবেশনের প্রশ্নোত্তর পর্বে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার সাড়ে ১০ কোটি টাকা খরচের একটা হিসাব দিয়েছেন। শেষ হওয়ার অপেক্ষায় থাকা এ আসরে ক্রিকেটারদের পারফরমেন্স নিয়ে হতাশার মাত্রা অনুমান করে নেওয়া তাই খুব কঠিন কিছুও নয়।

Check Also

কুমিল্লার বিপক্ষে ১৫৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে রাজশাহী

ক্রীড়া প্রতিবেদক :– বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটে রাজশাহী কিংসকে ১৫৩ রানের টার্গেট দিলো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ...

Leave a Reply