ঘুষ,দুর্নীতি,অনিয়মের বিরুদ্ধে সোচ্চার এবং এলাকার উন্নয়নে তিতাসবাসীর পাশে ছিলাম ভবিষ্যতেও থাকবো—পারভেজ হোসেন সরকার

নাজমুল করিম ফারুক :–
কুমিল্লার তিতাস উপজেলা পরিষদের সফল চেয়ারম্যান তরুন প্রজন্মে অহংকার পারভেজ হোসেন সরকার একান্ত সাক্ষাৎকারে বলেন, আমার পিতা মরহুম বেলায়ত হোসেন সরকার সর্বদায় এলাকার উন্নয়নে নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছে, বাবার স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে আমি তিতাসে এসেছিলাম। তিতাসবাসী আমাকে আপন করে নিয়েছে বলেই আমি ঘুষ দুর্নীতি অনিয়মের বিরুদ্ধে সোচ্চার এবং এলাকার উন্নয়নে জনগণের পাশে ছিলাম ভবিষ্যতেও থাকবো। তিনি আরো বলেন, আমার আদর্শ, নিষ্ঠা ও সততার কারণে একটি কুচক্রী মহল বিভিন্ন অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, সকল প্রতিকূলতা প্রতিহত করে এলাকার উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে জনগণ নিশ্চয় আমাকে পুনরায় নির্বাচিত করবেন।
এলাকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিগত ৫ বছরে তিতাস উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে উল্লেখযোগ্য প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে। তিতাসের শোলাকান্দিতে ৫০ মেগোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। পরান বাতাকান্দি গাবতলী মাঠে ১০ মেগোওয়াট সাব কেন্দ্র স্থাপনের কাজ চলছে উক্ত কাজ শেষ হলে শোলাকান্দি বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে উক্ত ১০ মেগোওয়াট বিদ্যুৎ তিতাসবাসী পাবে। রাস্তা-ঘাটের মধ্যে আসমানিয়া-বাতাকান্দি-মোহনপুর লঞ্চঘাট পর্যন্ত রাস্তা, আসমানিয়া-দুলারামপুর-জাহাপুর রাস্তা, দুলারামপুর থেকে ছালিয়াকান্দি রাস্তা, মাছিমপুর-কলাকান্দি ভায়া খানেবাড়ী রাস্তা, গাজীপুর-জগতপুর-ভূঁইয়ার বাজার রাস্তা, ভূঁইয়ার বাজার মোহনপুর রাস্তা, কড়িকান্দি বাজার-মজিদপুর ভায়া মোহনপুর রাস্তা, কড়িকান্দি বাজার তেতুইয়ারামপুর রাস্তা, বন্দরামপুর থেকে নয়াকান্দি রাস্তা, মৌটুপী থেকে ইউসুফপুর রাস্তা, মৌটুপী থেকে মজিদপুর রাস্তা (চলমান), শিকদার রোড থেকে মৌটুপী মাদ্রাসা পর্যন্ত রাস্তা, শিবপুর থেকে লালপুর ভায়া শাহাপুর রাস্তা, গৌরীপুর-হোমনা সড়ক থেকে জিয়ারকান্দি ইউপি অফিস পর্যন্ত রাস্তা, দড়িকান্দি থেকে গোপালপুর রাস্তা, শিবপুর থেকে নাগেরচর রাস্তাসহ অসংখ্য লিংক রোডের সংস্কার ও মেরামত কাজ করা হয়েছে। প্রায় অর্ধশতাধিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে কিছু কিছু বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মাণ ও ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যালয়গুলো সংস্কার কাজ করা হয়েছে। উপজেলার মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসাগুলোতে পর্যাপ্ত পরিমাণে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। পারভেজ হোসেন সরকার আরো বলেন, উপজেলার বিভিন্ন স্থানে প্রায় অর্ধশতাধিক ব্রীজ ও কালর্ভাট নির্মাণ করা হয়েছে। বিশেষ করে দুঃস্তদের মাঝে বিনামূলে ঢেউটিন, সেলাই মেশিনসহ অনুদান প্রদান করা হয়েছে। বাতাকান্দি ও কড়িকান্দি বাজারসহ অন্যান্য বাজারসমূহের অবকাঠামোর উন্নয়ন করা হয়েছে এবং উপজেলার ৯টি ইউনিয়নকে জাইকায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে, যার মাধ্যমে বিভিন্ন ইউনিয়নে উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে।
বাংলাদেশে জাইকার লোকাল এক্সপার্ট হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত উক্ত সফল উপজেলা চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার উক্ত উন্নয়ন ধারাকে অব্যাহত রাখতে এবং ঘুষ, দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও মাদক মুক্ত সমাজ গড়তে তিতাসবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply