কুমিল্লায় গলায় ওড়না পেচিয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি:–
কুমিল্লায় গলায় ওড়না পেচিয়ে মনি আক্তার পিংকি (১৫) নামের এক কিশোরী আত্মহত্যা করেছে। গতকাল মঙ্গলবার নগরীর শাসনগাছা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সে ওই এলাকার রিক্সাচালক আব্দুর রশিদ ও গৃহপরিচারিকা পারভীন আক্তারের মেয়ে। তাদের গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার হাতিরবন গ্রামে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মনি আক্তার পিংকি গত বছর নগরীর পুলিশ লাইন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করে। পরিবারের আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে চলতি বছরের শুরু থেকে তার লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যায়। শাসনগাছা মাস্টারপাড়া এলাকার আব্দুল হান্নানের বাড়িতে প্রায় ১৫ বছর ধরে তারা পারিবারিকভাবে বসবাস করে আসছিল। মোবাইলে পরিচয়ের সূত্র ধরে পিতা-মাতার অজ্ঞাত এক প্রেমিকের সাথে পিংকির প্রেম নিবেদন চলে আসছিল। বাবা-মা কাজে চলে যাওয়ার সুযোগে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে পিংকি তার ওই প্রেমিককে ঘরে থাকা ২০ হাজার টাকা মোবাইল বিকাশের মাধ্যমে প্রেরণ করে। পিংকির পিতা ও স্থানীয়রা জানায়, ওই টাকা প্রেরণের পর প্রেমিকের মোবাইল ফোনটি বন্ধ পেয়ে পিংকি ক্ষুব্ধ হয়ে বাড়ি ফিরে ঘরে ঢুকে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। এসময় তার ছোট বোন স্কুল ছাত্রী তানিয়া (১১) ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পেয়ে ডাক-চিৎকার শুরু করে। এতে কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে আশপাশের লোকজন দরজার ছিটকিনি খুলে ঘরে প্রবেশ করে পিংকিকে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। স্থানীয়রা জানায়, ২০ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে প্রেরণের পর প্রেমিকের মোবাইল ফোনটি বন্ধ পেয়ে পিংকি রাগে-ক্ষোভে ও অভিমানে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। কোতয়ালী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সামসুজ্জামান জানান, প্রেমিকের সাথে অভিমান করে পিংকি আত্মহত্যা করতে পারে বলে তার বাবা-মা জানিয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply