নাটোরের সিংড়ায় বিএনপি নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান ফটিকসহ নেতাকর্মীদের সন্ধান দাবীতে মানববন্ধন

সিংড়া(নাটোর)প্রতিনিধি:–
নাটোরের সিংড়া উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও কলম ইউনিয়ের সাবেক চেয়ারম্যান ইব্রাহিম খলিল ফটিকসহ  ৫ নেতাকর্মীর সন্ধান দাবীতে মানববন্ধন করেছে সিংড়া উপজেলা ও পৌর বিএনপি। বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের সিংড়া বাসষ্ট্যান্ডে শত শত নেতকর্মী ঘন্টাব্যাপী মনববন্ধন করে।
উপজেলা শ্রমিক দলের সভাপতি ও শহর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাখার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, থানা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান বজলার রহমান বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মজিবুর রহমান মন্টু, সাবেক চেয়ারম্যান শারফুল ইসলাম বুলবুল, শাহাদৎ হোসেন প্রমূখ। বক্তারা বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান ফজলার রহমান ফুনু হত্যাকান্ডে জড়িত প্রকৃত সন্ত্রাসীদের আড়াল করতেই উদ্দেশ্য প্রনোদিত ও রাজনৈতিক ভাবে বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মিথা মামলা দেয়া হয়েছে। অবিলম্বে বিএনপি নেতা ইব্রাহিম খলিল ফটিক ও ইউনিয়র যুবদল সভাপতি রিপনসহ ৫ নেতাকর্মী সন্ধান দাবি করেন। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।
উল্লেখ্য ১০ ফেব্রুয়ারী সোমবার সিংড়া উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহিম খলিল ফটিকসহ ৫ আসামি হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে বের হওয়ার মুহুর্তে আইন শৃংক্ষলা রক্ষাকারি বাহিনীর সদস্য পরিচয় দিয়ে সাদা পোশাকের কিছু লোক হাইকোর্ট ভবনের ফটক থেকে তাদের অপহৃত করে। এর আগেও দুই আসামিকে ঢাকা ও মানিকগঞ্জ থেকে আটক করলেও তাঁদের কোন সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। এদিকে মামলার তদারকি কর্মকর্তারা এসব ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে দাবি করেছেন।
গত ১৮ জানুয়ারি কলম ইউপি চেয়ারম্যান ফজলার রহমান ফুনু উপজেলার পার সাঐল এলাকায় দুর্বৃত্তদের হাতে নিহত হন। পরের দিন ১৯ জানুয়ারি নিহতে ভাই মইনুল হক চুনু বাদী হয়ে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক কলম ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহীম খলিল ফটিকসহ ১২জনের নাম উল্লেখ করে সিংড়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply