বন্ধুর ভালোবাসা

মোঃ আলাউদ্দিন:–

মানব জীবনে চলার পথে বিভিন্ন মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে অনেকের সঙ্গে বন্ধুত্বের সৃষ্টি হয়। তেমনি রং নাম্বারের সূত্র ধরে মোবাইলে মোঃ অহিদ উল্লাহ পাটোয়ারী নামের এক ছেলের সঙ্গে আমার বন্ধুত্বের সৃষ্টি হয়। কুমিল্লার কোটবাড়ি এলাকায় তার বাড়ি।
সেই ২০০৮ সালের কথা। আমি কুমিল্লা জিলা স্কুলের ৮ম শ্রেণীতে পড়ি। তখন আমি মেসে থাকতাম। ঈদুল আযাহার বাকি আর মাত্র দুইদিন। আমাকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার জন্য ভাইয়া আমার মেসে আসলেন। আমি সবকিছু গুছিয়ে ভাইয়ার সাথে বাড়িতে রওয়ানা দিলাম। ট্রেনে অতিরিক্ত ভিড় থাকায় বাসে টিকেট কেটে বাসে গিয়ে উঠলাম। নির্দিষ্ট সময়ে বাস ছেড়ে দিল। বাস চলতে থাকল তার নিজস্ব গতিতে। কিন্তু বাসটি ঢাকা-নোয়খালী আঞ্চলিক মহাসড়কের কুমিল্লার সদর দক্ষিন উপজেলার বিজয়পুর নামক স্থানে পৌঁছালে চালকের জ্ঞানহীনতার কারনে দূর্ঘনায় পতিত হয়। দূর্ঘটনার সময় বাসের চালক একহাতে মোবাইলে কথা বলছিলো আর অন্য হাতে গাড়ি চালাচ্ছিল। এমন সময় বাসটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পার্শবর্তী গাছের সাথে গিয়ে ধাক্কা খায়। ওই দূর্ঘটনায় আমার তেমন কিছু না হলেও ভাইয়া গুরুতর আহত হয়। ভাইয়ার মাথা ফেঁটে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। পরে পুলিশ ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় ভাইয়াকে নিয়ে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ভর্তি করি।
কিছুক্ষন পর ডাক্তার এসে বলল, মাথা ফেঁটে যাওয়ায় আপনার ভাইয়ার প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। তাকে বাচাঁতে হলে জরুরী ভিত্তিতে ঙ (ও) নেগেটিভ রক্তের প্রয়োজন। হাসপাতালে ঙ (ও) নেগেটিভ রক্ত নেই। কিন্তু আমার জানা মতেও আমাদের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনদের মধ্যেও কারো ঙ (ও) নেগেটিভ রক্ত নেই। আমার বন্ধুদের মধ্যে শুধুমাত্র অহিদ উল্লাহ পাটোয়ারীর রক্তের গ্র“প ঙ (ও) নেগেটিভ। তবে সে রক্ত দিবে কিনা তা নিয়ে ছিল সংশয়। তাই ভাইয়ার জীবন বাচাঁতে বাধ্য হয়ে তাকে ফোন দিয়ে সব কিছু খুলে বললাম। সে বলল, তুমি কোন চিন্তা করো না। আমি কিছুক্ষনের মধ্যে আসছি। কোন হাসপাতালে আসতে হবে সেটা বল। আমি তাকে হাসপাতালের ঠিকানা দিলাম। প্রায় ৪০ মিনিট পর সে বন্ধুর ভালোবাসার টানে হাসপাতালে এসে উপস্থিত হল। রক্ত দিয়ে নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে ফিরিয়ে দিল আমার ভাইয়ার জীবন ।

লেখকঃ মো: আলাউদ্দিন
সাংবাদিক, লেখক ও সংগঠক
দপ্তর সম্পাদক- নাঙ্গলকোট প্রেস ক্লাব
নাঙ্গলকোট, কুমিল্লা।
মোবাইল- ০১৯১১৫৩৮০৭৯

Check Also

মাদকসন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সরকারকেই জোরালো ভূমিকা নিতে হবে

—-মো. আলীআশরাফ খান লেখার শিরোনাম দেখে হয়তো অনেকেই ভাবতে পারেন, কেনো লেখাটির এমন শিরোনাম দেয়া ...

Leave a Reply