চান্দিনা সরকারি হাসপাতালের এক্স-রে ফিল্ম অন্যত্র বিক্রির অভিযোগ

মাসুমুর রহমান মাসুদ,চান্দিনা (কুমিল্লা):—

চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে বিভাগের জন্য সরকারিভাবে বরাদ্দকৃত এক্স-রে ফিল্ম অন্যত্র বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা অভিযোগ করেন, এক্স-রে টেকনিশিয়ান মো. কামাল হোসেন প্রায়ই সরকারিভাবে বরাদ্দকৃত এক্স-রে ফিল্ম হাসপাতালের বাহিরে ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে বিক্রি করেন। সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিক্রির সময় স্থানীয়রা তাকে হাতে নাতে ধরে ফেলে। পরে সে উগ্র হয়ে পড়ে এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এসময় হাসপাতাল এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে দীর্ঘদিন ধরে সকলের অগচোরে অবৈধভাবে এক্স-রে ফিল্ম বিক্রির কাজ করছেন এক্স-রে টেকনিশিয়ান মো. কামাল হোসেন। হাতে নাতে ধরা পড়ার পরও তিনি প্রসঙ্গ এড়িয়ে সাংবাদিকদের বলেন ‘স্থানীয় একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এক্স-রে ফিল্ম না থাকায় তার কাছ থেকে ১৬টি এক্স-রে ফিল্ম ধার নিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। সোমবার (১০ ফেব্র“য়ারি) সেগুলো ফেরত দিতে আসেন তিনি।’

এ ব্যাপারে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ইউসুফ জানান, বিক্রির অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ধার দেওয়া বা নেওয়ার কোন বিধানও নেই। এ কাজটি হয়ে থাকলে তাও অবৈধ। এ বিষয়ে সোমবার তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছি। আগামী ৩ দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে।

তিনি আরও জানান, হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আহাম্মদ কবির, মেডিকেল অফিসার ডা. আল মামুন, হেড ক্লার্ক আবু সাঈদকে নিয়ে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ওই কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনের উপর ভিত্তি করে নিয়মানুযায়ী প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply