মুসলিমশূন্য করা হচ্ছে আফ্রিকার দেশ সিএআর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :–
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইট্‌স ওয়াচের একজন কর্মকর্তা বলছেন, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের পরিস্থিতি এতোই খারাপ হয়েছে যে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই গোটা মুসলিম জনগোষ্ঠী দেশটি থেকে পালিয়ে যেতে বাধ্য হবে।

ঐ সংস্থার পরিচালক পিটার বুকার্ট বলছেন, দেশটির অর্থনীতির ওপর এর মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে। গত বছরের এক অভ্যুত্থানের পর খৃস্টান আর মুসলমানদের সহিংসতায় আফ্রিকার এই দেশটি ছিন্নভিন্ন হয়ে পড়েছে।

বুকার্ট বলেন, সেখানে শান্তিরক্ষার জন্য মোতায়েন হওয়া রুয়ান্ডার সৈন্যরা তাকে বলেছে যে এখানে যা ঘটছে তা দেখে তাদের নিজ দেশে দুইদশক আগে যা ঘটেছিল তার কথাই মনে পড়ে গেছে। তিনি জানান, তিনি নিজেও রাজধানী বাঙ্গিতে গত রোববার এমনি একটি হত্যাকান্ড ঘটতে দেখেছেন। সার্বিকভাবে পরিস্থিতি দেখে স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে যে দেশটির মুসলিম জনগোষ্ঠীকে নির্মূল করা হচ্ছে।

বুকার্ট বলছেন, বিপুল সংখ্যায় মুসলিমরা দেশ ছেড়ে পালাচ্ছেন। বেশ কিছু শহরের মুসলিম বাসিন্দাদের সবাই গত সপ্তাহে পালিয়ে গেছে। কাজেই সহিংসতার হাত থেকে বাঁচতে এখানকার সবশেষ মুসলিম অধিবাসীটিও যে দেশ ছেড়ে পাশের দেশ চাদে চলে যাবে, এটা এখন মাত্র কয়েক দিন বা সপ্তাহের ব্যাপার মাত্র।

অনেক পাড়া আছে যেখানে আর একজন মুসলিমও নেই। তাদের বাড়িঘর-দরজা-জানালা সবকিছু পরিকল্পিতভাবে ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে। তাদের কোন অস্তিত্ব যে একসময় এই দেশটিতে ছিল সেটাই মুছে ফেলা হচ্ছে।

বুকার্ট বলেন, এ সহিংসতা মূলত চালাচ্ছে বালাকাবিরোধী মিলিশিয়ারা।  তারা পরিকল্পিতভাবে মুসলিম পাড়াগুলোতে আক্রমণ চালাচ্ছে। তবে তাদের বিরোধী সেলেকা যোদ্ধারা এখনো আছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

বুকার্টের কথায়, যা হচ্ছে এর গুরুতর বিরূপ প্রভাব দেশটির অর্থনীতির ওপর পড়তে পারে, কারণ সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের গবাদিপশুর বাজার থেকে শুরু করে অনেক ব্যবসাই নিয়ন্ত্রণ করতো মুসলিমরা। সূত্র : বিবিসি।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply